চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও সিংড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

আপডেট: ডিসেম্বর ১৮, ২০১৬, ১২:০৮ পূর্বাহ্ণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ অফিস ও সিংড়া প্রতিনিধি


চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও নাটোরের সিংড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরে এক মাদ্রাসা ছাত্র এবং সিংড়ার জোলারবাতা নামক স্থানে পৃথক এ দুর্ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু হয়।
গত শুক্রবার শহরের কল্যানপুর নয়াগোলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার এসআই গাফফার হোসেন জানান, গত শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলা শহর স্টেডিয়ামে বিজয় দিবসের কুচকাওয়াজ দেখে বাইসাইকেলে করে বাড়ি ফিরছিলো বায়েজিদ (১৩) নামে এক মাদ্রাসা ছাত্র। পৌর এলাকার নয়াগোলা ঘাটপাড়ার আবু বক্করের ছেলে বায়েজিদ। এসময় কল্যানপুর নয়াগোলা এলাকায় একটি খালি  ট্রাক বায়েজিদকে চাপা দেয়। স্থানীয়রা গুরুতর আহত বায়েজিদকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতলে নেবার পথে সে মারা যায়। জনতা ঘাতক ট্রাক ও এর চালক  আজিজুলকে আটক করে। সংবাদ পেয়ে দুপুরে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ও ট্রাকটি থানায় নিয়ে আসে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।
অন্যদিকে নাটোরের সিংড়ায় বিআরটিসি বাসের চাপায় পৃষ্ট হয়ে অটোভ্যানের চালক ও যাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। শনিবার দুপুরে নাটোর-বগুড়া মহাসড়কের সিংড়া জোলারবাতা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, উপজেলার ছোট চৌগ্রামের মৃত জনাব আলীর ছেলে কালাম (৩০) ও মৃত তায়েজ উদ্দিনের স্ত্রী জাহিদা (৭০)। এ ঘটনায় ঘাতক বাস ও বাসের চালককে আটক করা হয়েছে। সিংড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দিন মন্ডল ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, গতকাল দুপুরে সিংড়া থেকে অটোভ্যান যোগে উপজেলার চৌগ্রাম ইউনিয়নের ছোট চৌগ্রামে বাড়িতে ফিরছিলেন বৃদ্ধা মহিলা জাহিদা (৭০)। বেলা ১২টার দিকে নাটোর-বগুড়া মহাসড়কের সিংড়া জোলারবাতা নামক স্থানে বগুড়া-নাটোরগামি বিআরটিসি পরিবহনের (দিনাজপুর-ফরিদপুর) একটি বাস (ঢাকামেট্টো চ-৭৩৫৫) সিংড়া-চৌগ্রামগামি ওই অটোভ্যানকে চাপা দেয়। এতে করে অটোভ্যানের চালক কালাম ও যাত্রী বৃদ্ধা জাহিদা ছিটকে রাস্তার উপরে পড়ে। এসময় বাসের চাকায় পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই দুজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে সিংড়া থানা পুলিশ ও নাটোর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের সহযোগিতায় লাশ দুইটি সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রেরণ করা হয়। পরে সেখান থেকে হাইওয়ে পুলিশের কাছে লাশ দুইটি হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় ঘাতক বাস ও বাসের চালককে আটক করা হয়েছে।