চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশের ব্যতিক্রম উদ্যোগ || হোম কোয়ারেন্টাইন লিখে বাড়ি চিহ্নিত

আপডেট: মার্চ ২৩, ২০২০, ১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি


বাড়ির ওয়ালে হোম কোয়ারেন্টাইন লিখছেন এক পুলিশ সদস্য-সোনার দেশ

করোনাভাইরাস সচেতনতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পুলিশ ব্যতিক্রম উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। যারা বিদেশ থেকে দেশে এসেছেন তাদের বাড়িতে থাকার জন্য হোম কোয়ারেন্টাইন লিখে দেয়া হচ্ছে। এতে করে অতি সহজেই এলাকার মানুষ সতর্ক থাকতে পারে। এ ধরনের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে এলাকার মানুষ।
সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জিয়াউর রহমান জানান, যেসব নাগরিক বিদেশ থেকে দেশে এসেছেন তাদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। যাতে তারা হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকেন সে উদ্যোগ পুলিশ গ্রহণ করেছে। এরই অংশ হিসেবে করোনা ভাইরাস সচেতনতায় পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় থানা পুলিশের দল সদর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নে বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইন লেখা দিয়ে এ কার্যক্রম শুরু করেছে। যারা বিদেশ থেকে এসে বাড়িতে অবস্থান করছেন, সেসব ব্যক্তিদের বাড়িতে পর্যায়ক্রমে হোম কোয়ারেন্টাইন লিখে দেয়া হবে।
তিনি আরো জানান, মেয়াদ শেষ না হওয়া পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনে অবস্থান করবেন। আতঙ্ক নয়. প্রত্যেক ব্যক্তিকে সতর্ক থাকার জন্য এ ধরনের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিদের নজরদারিতে রাখা এবং সার্বিক সহযোগিতার জন্য এলাকাবাসীর প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
অন্যদিকে, সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে থানায় প্রবেশÑ এমনই ব্যতিক্রম উদ্যোগ গ্রহণ করেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ। করোনাভাইরাস নিয়ে সচেতনতায় মূল ফটক পেরিয়ে থানা ভবনের প্রবেশের মুখে বসানো হয়েছে হাত ধোয়ার বেসিন। সেখানে দায়িত্বে রয়েছেন এক পুলিশ সদস্য। সেবা নিতে আসা ব্যক্তিদের হাত ধোয়ার পর ভেতরে প্রবেশের অনুমতি দিচ্ছেন।
গত শনিবার থেকে এই ধরনের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। গতকাল রোববার বেলা ১০ টায় থানা চত্বরে গিয়ে দেখা যায়, ডেকোরেটর থেকে সংগ্রহ করে অস্থায়ী বেসিন বসানো হয়েছে। যারা থানায় সেবা নিতে আসছেন, তাদের সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার পর ভেতরে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হচ্ছে।
এসময় হাত ধোয়া কয়েকজন ব্যক্তি জানান, তারা ব্যক্তিগত কাজে থানায় এসেছেন। থানায় আগত ব্যক্তিদের করোনাভাইরাস নিয়ে আরো সচেতন করে তুলবে।
থানার ডিউটি অফিসার উপ-পুলিশপরিদর্শক মোসা. আলেয়া খাতুন বলেন, থানায় সেবা নিতে আসা প্রত্যেক ব্যক্তিকে হাত ধুয়ে ভেতরে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে। এতে পুলিশ সদস্যসহ আগতরাও অনেকটা নিরাপদ থাকছেন।
এদিকে, সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জিয়াউর রহমান বলেন, থানায় সেবা নিতে আসা ব্যক্তিদের করোনাভাইরাস নিয়ে সচেতনতায় সংক্রমণ থেকে মুক্ত থাকার জন্য সাবান দিয়ে হাত পরিস্কারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, পুলিশ সুপারের নির্দেশমতো এমন কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে, যা অব্যাহত থাকবে।