চাঁপাইরনবাবগঞ্জে সংবর্ধনার কম্বল পান নি ১৩ বীরাঙ্গনা

আপডেট: ডিসেম্বর ১৮, ২০১৬, ১২:১০ পূর্বাহ্ণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ অফিস


চাঁপাইনবাবগঞ্জে গত শুক্রবার মহান বিজয় দিবসে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবার, যুদ্ধাহত ও বীরমুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনায় এসে কম্বল না পেয়ে খালি হাতে ফিরে গেছেন ১৩ বীরাঙ্গনা। এসব মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সংবর্ধনার আয়োজন করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসন। এসব মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য দুপুরের খাবার ও ৫শ টাকার প্রাইজবন্ডের ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু অনুষ্ঠান শেষে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার ও বীরাঙ্গনাদের অনেকই খালি হাতে ফিরে গেছেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এদিন বেলা ১২টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজ মিলনায়তনে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৩ জন রীরাঙ্গনাসহ ৬৭ মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এরশাদ হোসেন খানের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার টিএম মোজাহিদুল ইসলাম। এসময় বক্তব্য দেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সেরাজুল হক ও সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রুহুল আমিন।
অনুষ্ঠানে আসা গোমস্তাপুরের বোয়ালিয়া এলাকার মুক্তিযোদ্ধা মজিদুল ইসলাম জানান, যদি নাই দিবে তাহলে প্রায় ৫০ কিলোমিটার দূর থেকে আমাদের হয়রানি করে কেনো আনা হলো। শুধু তাই নয় এ ধরণের অনুষ্ঠানে প্রথমবারের মতো আসা ১৩ জন বীরঙ্গনাকেও অসম্মান করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে আসা বীরাঙ্গনা হাজেরা বেগম, চম্পা বেগম, রহিমা বেগমসহ অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘হামারঘে কম্বলখান পানু না। যদি নাই দিবে তাহলে এতো দূর থেইক্যা কষ্ট কইর‌্যা হামরাকে কেনে আনলে।’
এ বিষয়ে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সেরাজুল হক উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, কম্বল কম পড়ে গেছে, এখন কোথা থেকে দিব।
এই বিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক মাহামুদুল হাসানের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায় নি।