চেয়ারম্যানের নির্দেশ ছাড়া চুল কাটা যাবে না

আপডেট: অক্টোবর ২৭, ২০২১, ৭:২০ অপরাহ্ণ

নাজিম উদ্দিন হাওলাদার

সোনার দেশ ডেস্ক:


তার নির্দেশের বাইরে অন্য স্টাইলে চুল কাটলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন ভোলার চরফ্যাশনের জাহানপুর ইউপি চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন হাওলাদার। বিজ্ঞপ্তি জারি করে ইউনিয়নের সর্বত্র লাগিয়ে দিয়েছেন তিনি। বিষয়টির প্রতিবাদ করায় এক কিশোরকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে চেয়ারম্যানের ছেলে তুষারের বিরুদ্ধে।
বিজ্ঞপ্তিতে চেয়ারম্যান উল্লেখ করেন, সুন্নতি কাটিং, ডিফেন্স/আর্মি কাটিং ছাড়া অন্য কোনও স্টাইলে চুল কাটলে সেলুন মালিক ও নরসুন্দরদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গত ২৫ অক্টোবর এই বিজ্ঞপ্তি জারি করেন ইউপি চেয়ারম্যান। এরপর থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। গুঞ্জন চলছে বিভিন্ন সচেতন মহলে। গত ইউপি নির্বাচনে প্রথমবারের মতো নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন নাজিম। বাংলাদেশ সংবিধানের ৩১ ও ৩২ ধারা লঙ্ঘন করে মানুষের জীবন ও ব্যক্তিস্বাধীনতার অধিকার ক্ষুণ্ন করে এমন বিজ্ঞপ্তি জারি করায় ক্ষুব্ধ স্থানীয়রা।
এ বিষয়ে চেয়ারম্যান নাজিম বলেন, ‘আমি স্থানীয় মুসলিমদের সঙ্গে কথা বলে ২৫ অক্টোবর নোটিশ জারি করেছি। তবে কতটুকু সঠিক করেছি বা ভুল করেছি আমি দ্বিধা-দ্বন্দ্বে আছি এখন।’ কিশোরকে মারধরের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমার ছেলে তুষারের সঙ্গে স্থানীয় জসিমের ছেলের বাক-বিতণ্ডা হয়েছে। আমি মিটমাট করে নিয়েছি।’
উপজেলা নির্বাহী অফিসার নোমান রাহুল জানান, ইউপি চেয়ারম্যান এরকম নোটিশ জারি করতে পারেন না। এর মাধ্যমে তিনি মানুষের রুচিশীলতা ও ব্যক্তিস্বাধীনতা ক্ষুণœ করেছেন।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন