ছত্তিশগড়ে দশেরায় বেপরোয়া গাড়ি পিষল ২০জনকে, ঘটনায় গ্রেপ্তার ২, সাসপেন্ড দুই পুলিশকর্মীও

আপডেট: অক্টোবর ১৬, ২০২১, ২:০৮ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক


ছত্তিশগড়ের যশপুরে ভিড়ে ঠাসা দশেরার শোভাযাত্রার মধ্যে গাড়ির ধাক্কার ঘটনায় প্রধান অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার বিকেলের ওই মর্মান্তিক ঘটনায় ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত ১৭ জন। নিহতের পরিবারকে ৫০ লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্য দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভুপেশ বাঘেল। ঘটনায় দুই পুলিশ আধিকারিককে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

কয়েকদিন আগেই উত্তরপ্রদেশের লখিমপুরে বিক্ষোভরত কৃষকদের উপরে গাড়ি চালিয়ে দেওয়ার ঘটনায় শিউরে উঠেছিল দেশ। সেই দুঃস্মৃতিই ফের ফিরে এল ছত্তিশগড়ে। সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে জানা যাচ্ছে দুই অভিযুক্তের নাম বাবলু বিশ্বকর্মা ও শিশুপাল সাহু। তারা মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দা। যশপুরের আইজি অজয় যাদব জানিয়েছেন, দুই অভিযুক্ত মাদক চোরাচালানের কাজ করত। এদিনও তারা ওড়িশা থেকে মাদক নিয়ে আসছিল মধ্যপ্রদেশে। দুই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে তাদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করা হয়েছে। যে এসইউভি গাড়িটি ভিড়ের মধ্যে ধাক্কা মেরেছিল তার ভিতরে প্রচুর পরিমাণে মারিজুয়ানা পাওয়া গিয়েছে বলেও জানাচ্ছে পুলিশ।

এই ঘটনাকে ‘দুঃখজনক ও হৃদয়বিদারক’ বলে মন্তব্য করেছেন মুখ্যমন্ত্রী ভুপেশ বাঘেল। তিনি টুইটারে লিখেছেন, ”অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে যে পুলিশ আধিকারিকদেরও দোষী মনে করা হচ্ছে তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একজনকেও ছাড়া হবে না। সবার সঙ্গে ন্যায় হবে। মৃতের আত্মাকে শান্তি দিন ঈশ্বর।”
প্রসঙ্গত, শুক্রবার যশপুরে স্থানীয়রা দশেরার শোভাযাত্রার আয়োজন করেছিলেন। শোভাযাত্রাটি রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে, ঘটনার সময় রাস্তায় দাঁড়িয়ে ছিলেন ২০-২৫ জন লোক। এমন সময় পিছন থেকে দ্রুত গতিতে আসা গাড়িটি তাঁদের পিষে দেয়। এরপর মিছিলে থাকা বাকিরা গাড়িটিকে ধাওয়া করে ধরে ফেলে। এরপর উত্তেজিত জনতা গাড়িটিতে আগুনও লাগিয়ে দেয়। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ আধিকারিকরা। ওই এলাকায় ছড়িয়েছে তীব্র চাঞ্চল্য। রীতিমতো থমথমে পরিবেশ গোটা জায়গায়। মোতায়েন করা হয়েছে বিশাল পুলিশবাহিনীও।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ