ছাত্রকে মারধর : বিচারের দাবিতে সহপাঠীদের ক্লাস বর্জন ও বিক্ষোভ

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১২, ২০২২, ১১:০৭ অপরাহ্ণ

তানোর প্রতিনিধি:


ছাত্রকে মারধরের বিচারের দাবিতে ক্লাস বর্জন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে শিক্ষার্থীরা। সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার সরনজাই উচ্চ বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে। বিক্ষোভ মিছিলটি সরনজাই বাজার প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে স্কুল চত্বরের শহিদ মিনারে এসে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।উক্ত সমাবেশে শিক্ষার্থীদের পক্ষে কথা বলে, ১০ম শ্রেণির ছাত্র সিহাব উদ্দিন, সিয়াস হোসেন ও নাইম উদ্দিন।

তারা দাবি করে, গত ৫ সেপ্টেম্বর ৪৯তম গ্রীষ্মকালিন ফুটবল খেলা তানোর ডাকবাংলা ফুটবল মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় চাপড়া স্কুল দুই গোলে পরাজিত হয় সরনজাই উচ্চ বিদ্যালয়ের কাছে। তারা পরাজয় মেনে নিতে না পেরে মাঠে আমাদেরকে মেরে জখম করে। বর্তমানে আমাদের বন্ধু ১০ম শ্রেণির ছাত্র আবদুল হাই কাফি গুরুতর জখম হয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। বিষয়টি আমরা লিখিত অভিযোগ করি তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানিয়েছি।

এনিয়ে চাপড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জিল্লুর রহমান বলেন, খেলা নিয়ে উত্তেজনার একপর্যায়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে মারধরের ঘটনা ঘটে। তবে আমরা শিক্ষার্থীদের থামিয়ে দিই। এতে কেউ আহত হয়েছে কি না তা আমার জানা নেই।

সরনজাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আবদুল হান্নান বলেন, কিছু শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। আবদুল হায় কাফি গুরুতর অবস্থায় রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শির্ক্ষীরা ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। বিষয়টি বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতিকে জানানো হয়েছে। সন্ধ্যায় স্কুল পরিচালনা পরিষদের কমিটি সভা।

তানোর উপজেলার নির্বাহী অফিসার পংকজ চন্দ্র দেবনাথ বলেন, মারামারির বিষয়টি অভিযোগ পেয়েছি। আগামী বুধবার উভয় পক্ষকে আসতে বলেছি। উভয় পক্ষের কথা শুনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে বিক্ষোভ মিছিলের বিষয়ে তার জানা নেই।