ছাত্রলীগের সম্মেলন ‘শিগগির’

আপডেট: জুলাই ১৪, ২০১৭, ১২:৪৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


কমিটির দুই বছরের মেয়াদ পূর্ণ হতে চলা ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন ‘শিগগিরই’ হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।
আওয়ামী লীগের ছাত্র সংগঠনটির বুধবারের সাধারণ সভায় সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার দাবি উঠার পর তা নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয় বলে সংবাদমাধ্যমে খবর এসেছে।
এ বিষয়ে সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি হিসেবে কোনো মত আছে কি না জানতে চাইলে বৃহস্পতিবার ওবায়দুল কাদের বলেন, “দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার জন্য আওয়ামী লীগের সম্মেলনের তারিখও পেছানো হয়েছে। আর দেশে এখন বন্যা হচ্ছে।
“তবে ছাত্রলীগের সম্মেলন প্রলম্বিত হবে না। খুব শিগগিরই আপনারা ছাত্রলীগের সম্মেলনের খবর পাবেন।”
২০১৫ সালের ২৬ জুলাই সম্মেলনের মাধ্যমে সাইফুর রহমান সোহাগ ছাত্রলীগের সভাপতি এবং জাকির হোসাইন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী আগামী ২৬ জুলাই ছাত্রলীগের এই কমিটির মেয়াদ পূর্ণ হচ্ছে।
বৃহস্পতিবার বিকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সম্পাদকমণ্ডলীর বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন ওবায়দুল কাদের।
তিনি বলেন, নির্বাচন সামনে রেখে ‘আশির্বাদ’ পাওয়ার জন্য বিএনপিতে বাইরে বাইরে ‘ভারতপ্রীতির আলামত’ প্রকাশ পাচ্ছে।
এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, “সময় বুঝে তাদের ভারতপ্রীতি, সময় বুঝে ভারতভীতি। এখন তাদের মনে মনে ভীতি থাকলেও নির্বাচনের বাতাস যখন বইছে, তখন স্বাভাবিক কারণে হয়ত একটু আশির্বাদ পাওয়া যায় কি না, ছায়া পাওয়া যায় কি না। সেজন্য একটু ভারতপ্রীতির আলামত বাইরে বাইরে প্রকাশ পাচ্ছে। এটাইতো বিএনপির চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য।
“আমাদের ক্ষমতায় বসাবে বাংলাদেশের জনগণ। কোনো বিদেশি শক্তি ক্ষমতায় বসাবে, এই নিয়ে বিএনপি ভাবছে।”
বিএনপি নেতাদের বিরুদ্ধে মিথ্যাচারের অভিযোগ তুলে ওবায়দুল কাদের বলেন, “আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে প্রত্যাশিত বিজয় থেকে ঠেকাতে পারবে না।”
আগামী ২০ জুলাই ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আওয়ামী লীগের বিভাগীয় প্রতিনিধি সভা হবে বলে তিনি।
আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সারা দেশে বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশনা দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, “বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে কী আপডেট আছে, সেটা নিয়ে আজ আমরা বসেছিলাম। ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তিনটি টিম বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে কাজ করছে।”
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ