ছাত্রলীগ নেতা রবিউল হত্যার বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ

আপডেট: এপ্রিল ১৬, ২০১৭, ১২:২২ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী ও কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি রবিউল ইসলাম রবির খুনের বিচার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে মতিহার থানা আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা। গতকাল শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন স্টেশন বাজার থেকে শুরু হয়ে চারুকলা চত্বর ঘুরে পুনরায় স্টেশন বাজারে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ মিলিত হয়।
মতিহার থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তারা বলেন, হত্যাকাণ্ডের চার বছরেও বিচার না হওয়ায় ক্ষুদ্ধ নিহত রবিউলের পরিবার। মামলার সকল আসামি জামিনে থাকায় বাদীপক্ষকে অব্যাহত হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। তারা প্রকাশ্যে সংঘটিত এই হত্যা মামলার সুষ্ঠু তদন্ত শেষ করে আদালতের মাধ্যমে জড়িতদের কঠোর শাস্তির দাবি জানান। সেই সঙ্গে বিচার কাজ দ্রুত নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।
মহানগর ছাত্রলীগের উপ-আইন বিষয়ক সম্পাদক নূরনবী হোসেন রনির সঞ্চালনায় সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর ছাত্রলীগের সহসভাপতি মিজানুর রহমান, ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের ছাত্রলীগের সভাপতি আনিসুর রহমান রিংকু, ২৬ নম্বর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম রেজা, মহানগর যুবলীগের সদস্য আনোয়ারুল ইসলাম মানিক ও থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শিমুল আহমেদ প্রমুখ।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ১৪ এপ্রিল পূর্বশত্রুতার জেরে রাবির চারুকলা এলাকায় স্থানীয় ছাত্রদলের রাজনীতিতে যুক্ত একদল যুবক রবিউলের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। সন্ত্রাসীদের ইটের আঘাতে মাথা থেতলে ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় রবিউলের। ঘটনার পরদিন ১৫ এপ্রিল রবিউলের বড় ভাই শফিউল ইসলাম নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় ১২ জনের নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।
মামলায় আসামি করা হয় মেহেরচন্ডী এলাকার হকার হাসানের ছেলে সেতু, বাবু কসাইয়ের ছেলে বাবলা, বাবলু ড্রাইভারের ছেলে সোহাগ, আব্দুল জলিলের ছেলে সাঈদ, নেজাম উদ্দিনের ছেলে রেজাউল, এশরাম গার্ডের ছেলে নিটুল, আব্দুস সাত্তারের ছেলে রাজন, আবুল কালাম মুন্সির ছেলে সুমন, আব্দুল ওহাবের ছেলে জামিল, নূর মোহাম্মদ মোল্লার ছেলে কোয়েল, মোনছাদের ছেলে সুরুজ ও মিঠুকে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ