ছাত্রাবাস থেকে রহস্যজনকভাবে শিক্ষার্থী নিখোঁজ

আপডেট: মে ৯, ২০১৭, ১২:৫৯ পূর্বাহ্ণ

 

নিজস্ব প্রতিবেদক


আব্দুর রাজ্জাক ওরফে রাজ -সোনার দেশ

নগরীর একটি ছাত্রাবাস থেকে আব্দুর রাজ্জাক ওরফে রাজ (২২) নামে এক যুবক রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়েছেন। গত শনিবার সকালে বাইরে যাওয়ার নাম করে ছাত্রাবাস থেকে বেরিয়ে গিয়ে আর ফিরে আসেনি রাজ। এ বিষয়ে তার পিতা হযতর আলী গত রোববার রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।
নিখোঁজ রাজ রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের (আরপিআই) সিভিল বিভাগের তৃতীয়বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি জেলার তানোর উপজেলার দেওতর গ্রামে। রাজ নগরীর ফিরোজাবাদ জামে মসজিদ সংলগ্ন একটি ছাত্রাবাসে থাকতেন।
রাজের পিতা হযরত আলী জানান, রোববার সকালে তিনি জানতে পারেন তার ছেলে ছাত্রাবাস থেকে বেরিয়ে আর ফেরেন নি। এরপরে তিনি আত্মীয়স্বজনদের বাড়িতে খোঁজ নিয়েছেন। কোথাও ছেলের সন্ধান পাওয়া যায়নি।
তিনি আরো জানান যে, পরীক্ষার ফরমপূরণের নামে কয়েকজনের কাছ থেকে টাকা নিয়েছেন। কিন্তু কলেজে সে ফরমপূরণ করেনি। এছাড়াও গোপনে সাইকেলটিও বিক্রি করে টাকা জমিয়েছে। আনুমানিক ১০ হাজার টাকা নিয়ে রাজ নিখোঁজ হয়েছেন।
তিনি আরো জানান, নিখোঁজ হওয়ার দিন তিনি ছাত্রবাসে তার সব জিনিসপত্র রেখে গিয়েছে। এমনকি তার ব্যবহারের মোবাইল ফোনটিও রেখে গেছে। নিখোঁজের আগে রাজের কোন অস্বাভাবিক আচরণ পরিবারের কারো চোখে পড়েনি বলে দাবি করেছেন তার পিতা।
রাজের বন্ধু সাব্বির হোসেন জানান, রাজ শেষের দিক এসে লেখাপড়া প্রায় ছেড়ে দিয়েছিলেন। ষষ্ঠ সেমিস্টারের ফরমপূরণ তিনি করেন নি।
এ বিষয়ে বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহাদাত হোসেন জানান, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ