ছায়াপথের কেন্দ্র থেকে ভেসে এল রহস্যময় তরঙ্গ! চাঞ্চল্য বিজ্ঞানী মহলে

আপডেট: অক্টোবর ১৭, ২০২১, ৮:৫১ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


মহাবিশ্বে অনন্ত পরিধিতে কত রহস্যই লুকিয়ে রয়েছে। আদিম যুগ থেকে সেই সব না জানা প্রশ্নের উত্তর খুঁজে এসেছে মানুষ। অথচ আজও উত্তর মেলেনি। সম্প্রতি ছায়াপথের কেন্দ্র থেকে ভেসে আসা এক বেতার সংকেত ঘিরে ফের চাঞ্চল্য দেখা দিল। সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণারত এক গবেষক দল সন্ধান পেয়েছে সেই সংকেতের।

তবে এই সংকেতের সন্ধান এই বছর নয়, মিলেছিল ২০২০ সালে। সম্প্রতি সেই সন্ধানের কথা জানা গিয়েছে ‘দ্য অ্যাস্ট্রোফিজিক্যাল জার্নালে’ প্রকাশিত গবেষণাপত্র থেকে। বিশ্বের অন্যতম সংবেদনশীল রেডিও টেলিস্কোপ ‘অস্ট্রেলিয়ান স্কোয়ার কিলোমিটার অ্যারে পাথফাইন্ডার’ তথা অঝকঅচ-র সাহায্যে গবেষকরা পেয়েছিলেন এমন এক মহাজাগতিক বস্তুর সন্ধান, যার উজ্জ্বলতা প্রতি মুহূর্তে বদলাচ্ছিল। বস্তুটির নাম রাখা হয়েছে ‘এএসকেএপি জে ১৭৩৬০৮.২-৩২১৬৩৫’। সেখান থেকে ভেসে আসছিল সংকেতটি।

সংকেতটির উৎস যে ঠিক কী, তা এখনও বোঝা সম্ভব হয়নি। দেখা গিয়েছে, একবার সেটি প্রবল উজ্জ্বল হয়ে উঠছে। তারপর আবার ফিকে হয়ে গিয়েছে। তারপর আবার সেটিকে উজ্জ্বল হয়ে উঠতে দেখা গিয়েছে। সময়ে সময়ে সেটি ফিকে অবস্থা থেকে ১০০ গুণ বেশি উজ্জ্বল হয়ে উঠতেও দেখেছেন গবেষকরা। পরে দক্ষিণ আফ্রিকার আরেক সংবেদনশীল মিরক্যাট রেডিও টেলিস্কোপ দিয়েও সংকেতটির উৎস খুঁজে বের করার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত ওই আশ্চর্য মহাজাগতিক বস্তুটির স্বরূপ বুঝে উঠতে পারেননি তাঁরা।

প্রথমে মনে করা হয়েছিল এটি হয়তো পালসার বা এক ধরনের নক্ষত্র, যেখানে সারাক্ষণ আগুনের ঝড় চলে। পরে অবশ্য বোঝা যায়, এটি তেমন কোনও মহাজাগতিক বস্তু নয়। ঠিক এমন না হলেও, এই ধরনের সংকেতের দেখা অবশ্য এর আগেও কয়েকবার মিলেছে। বিজ্ঞানীদের ধারণা, সম্ভবত কোনও একটি নয়, একগুচ্ছ বস্তুর সম্মিলিত সংকেতই ধরা পড়েছে টেলিস্কোপে।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ