জঙ্গিবাদি শক্তির নৈরাজ্য সম্পর্কে সজাগ থাকতে হবে || ইফতার মাহফিলে ’৮০ দশকের সাবেক নেতৃবৃন্দ

আপডেট: জুন ১৯, ২০১৭, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


ইফতার মাহফিলে বক্তব্য দেন সাবেক ছাত্রনেতা সরিফুল বাবু সোনার দেশ

’৮০র দশকের সাবেক ছাত্রসংগ্রাম পরিষদের উদ্যোগে ইফতার মাহফিলে বক্তারা বলেছেন, সাবেক নেতাদের একে অপরের সঙ্গে সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে হবে। সাবেক ছাত্রনেতারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী। আর এ চেতনা নতুন প্রজন্মের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে হবে। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় নগরীর সাহেববাজার মুন লাইট চাইনিজ রেস্টুরেন্টে আয়োজিত ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে সাবেক নেতৃবন্দ এসব কথা বলেন।
সাবেক নেতারা বলেন, বর্তমানে ’৮০র দশকের সাবেক নেতারা জীবনবাজি রেখে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে কাজ করে চলেছেন। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে যেতে হবে। আসন্ন নির্বাচনকে ঘিরে জঙ্গিবাদি শক্তির নৈরাজ্য সম্পর্কে সজাগ থাকতে হবে। তারা যেন অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে না পারে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি রাষ্ট্র ক্ষমতায় থেকে দেশের উন্নয়ন ও  রুপরেখা পরিবর্তন করে দিয়েছে তা মনে রাখতে হবে।
ইফতার মাহফিলে মরহুম সাবেক ছাত্রনেতা জাহাঙ্গীর আহাম্মেদ, জগলুল আহাম্মেদ, সাজাহান সিরাজ, সালাউদ্দীন বেবী, জামিল আখতার রতন, রফিকুল ইসলাম দুলাল, জিয়াউল হক টুকুর বিদেহি আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। ইফতার মাহফিলে দোয়া পরিচালনা করেন, সাবেক ছাত্রনেতা হাবিবুর রহমান বাবু।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, সাবেক ছাত্রনেতা আসাদুজ্জামান আসাদ, রবিউল আলম বাবু, নফিকুল ইসলাম সেল্টু, সরিফুল ইসলাম বাবু, নুরুল ইসলাম হিটলার, শফিকুল ইসলাম শফিক, ফেরদৌস জামিল টুটুল, চুন্নœা মুর্শেদ, আবু সালেহ, কামরান হাফিজ, আব্দুল্লা আল মাসুদ শিবলি, লায়েব উদ্দীন লাভলু, নকিবুল ইসলাম নবাব, রবিউল হক কাকর, তবিবুর রহমান, সেলিম মনোয়ার, মেরাজুল ইসলাম মেরাজ, শামসাদ হোসেন মডি, লেনিন, আব্দুল লতিফ, আমীনুল ইসলাম, কামরুজ্জামান চঞ্চল, আসলাম সরকার, মো. কামরুজ্জামান, তপন সেন, কামরুল বাহার এমি, আতিকুজ্জামান আতিক, আবু রায়হান মাসুদ, মোস্তাফিজুর রহমান মানজাল, সফিকুল সরকার ও সদ্য বিদায়ী ছাত্রনেতা শফিকুজ্জামান শফিক প্রমুখ। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন, ডা এফএমএ জাহিদ ও অধ্যক্ষ আমীনুর রহমান, বিএফইউজের সদস্য মো. আনিসুজ্জামান ও আরইউজের সাধারণ সম্পাদক মামুন অর রশিদ প্রমুখ।