জমি নিয়ে বিরোধে বৃদ্ধকে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে দিয়েছে প্রতিপক্ষ

আপডেট: এপ্রিল ১৭, ২০১৭, ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ

গুরুদাসপুর প্রতিনিধি


জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ফরমার আলী (৭০) নামে এক বৃদ্ধকে লোহার রড ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে বাম পা ও বাম হাত ভেঙে দিয়েছে প্রতিপক্ষ। গতকাল রোববার বেলা ৪টার দিকে নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার ধারাবারিষা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
গতকাল সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে মুমূর্ষাবস্থায় ফরমান আলীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। থানায় মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছিল বলে পুলিশ জানায়।
থানা পুলিশ ও আহত ফরমান আলীর ছেলে আজিরুল ইসলাম জানান, ফরমান আলীর সঙ্গে ধারাবারিষা প্রামানিকপাড়া জামে মসজিদের জমি নিয়ে প্রতিপক্ষ জিল্লুর রহমান, আহাদ আলী ও তার ছেলে নাছির ও আরিফের বিরোধ চলে আসছিল। গতকাল বিকালে ফরমান আলী ছাগলকে ঘাস খাওয়াতে বাড়ির পাশের মাঠে নিয়ে গেলে আহাদ আলী তার সমর্থকদের নিয়ে ফরমান আলীকে মারধর করে। এক পর্যায়ে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে প্রতিপক্ষরা লোহার রড ও হাতুড়ি দিয়ে তাকে বেধড়ক পেটায়। এতে ফরমান আলীর বাম পা ও বাম হাত ভেঙে যায়। জখম হয় শরীরের বিভিন্ন জায়গা।
ফরমান আলীর ছেলে আজিরুল ইসলাম জানান, এলাকায় তারা প্রভাবশালী। ওই বিরোধের কারণে গত দুই মাস ধরে তাদের বাড়ি ছাড়া করে রাখা হয়েছে। গত বৃহষ্পতিবার ফরমান আলী বাড়ি ফিরতে পারলেও প্রতিপক্ষের ভয়ে ফরমান আলীর তিন ছেলে সুজন সরকার, আজিরুল সরকার ও আরিফুল সরকার বাড়ি ফিরতে পারে নি। প্রভাবশালী ওই ব্যক্তিদের শাস্তি দাবিসহ তাদের নিরাপত্তা দাবি করছেন।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আহাদ আলী বলেন, দুই মাস আগে ফরমান আলীর ছেলেরা মসজিদের জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে তাকে মারধর করে। এতে তার সমর্থকরা ফরমান আলীর বিরুদ্ধে নাখোশ ছিল। ওই বিরোধের জের ধরে গতকাল ফরমান আলীকে মারধর করা হয়েছে। অভিযুক্ত জিল্লুর রহমান বলেন, তিনিও মারধরের বিষয়টি শুনেছেন। তবে মসজিদের জমি নিয়ে বিরোধের কথা স্বীকার করেন তিনি।
গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দিলীপ কুমার দাস এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।