জয়পুরহাটে বিপুল পরিমাণ বুপ্রেনরফিন ইঞ্জেকশনসহ তিন মাদক ব্যবাসায়ীকে গ্রেফতার

আপডেট: জুলাই ৭, ২০২৪, ১২:২৭ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক :


র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩ এর আভিযানিক দল মনিবার (৬ জুলাই) রাত সাড়ে ১১ টায় জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় অভিযান চালিয়ে বুপ্রেনরফিন ইঞ্জেকশনসহ তিন মাদক ব্যবাসায়ীকে গ্রেফতার করেছে। খবর বিজ্ঞপ্তির।

ধৃত আসামীরা হলো- দিনাজপুওেরর পাবর্তীপুর থানার দরগাপাড়ার মৃত শাহ আলমের ছেলে মো. মানিক (২৮), এবং চান্দাপাড়ার আব্দুল খালেকের ছেলে শাহীন আলম (২৯)। অপর আসামী জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি থানার বাগজানার নসির উদ্দিনের স্ত্রী আরোজা বেগম (৪৫)। অভিযানকালে পাবর্তীপুর চান্দাপাড়ার আজাহার রহমান রাজার ছেলে আতিয়ার রহমান (২৮) কৌশলে পালিয়ে যায়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানান হয়, পলাতক আসামী আতিয়ার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। সে সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে মাদক সংগ্রহ করে মানিক, শাহীন এবং আরোজা বেগম এর মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন জেলায় খুচরা ও পাইকারি বিক্রি করতো। এমন সংবাদের ভিত্তিতে গত কয়েকদিন ধরে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩ এর গোয়েন্দা দল উক্ত ব্যক্তিদের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ শুরু করে।

৬ জুলাই গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উক্ত আসামীগণ নীলসাগর এক্সপ্রেস এ মাদক বহনকালে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর থানাধীন আক্কেলপুর রেলস্টেশন প্লাটফর্ম এলাকা দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩ এর আভিযানিক দল উক্ত আসামীদেরকে আটক করে এবং মুলহোতা আতিয়ার কৌশলে পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে নিরপেক্ষ সাক্ষীদের উপস্থিতিতে ধৃত আসামীদের সাথে থাকা দুটি ট্রাভেল ব্যাগ ও একটি ভ্যানিটি ব্যাগ তল্লাশি করলে তাদের নিকট থেকে অবৈধ মাদকদ্রব্য ২,২৩৫ পিস বুপ্রেনরফিন ইঞ্জেকশন উদ্ধার করা হয়।

মাদকসেবী ও মাদক কারবারী সিন্ডিকেটের অন্যান্য সদস্যদের ধরতে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট ক্যাম্পের গোয়েন্দা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।
গ্রেফতারকৃত আসামী ও উদ্ধারকৃত আলামত সান্তাহার রেলওয়ে থানায় জমা করতঃ একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ