জয়পুরহাটে কৃষক হত্যায় একই পরিবারের আটজনসহ ১০ জনের যাবজ্জীবন

আপডেট: জুন ৩, ২০২৪, ২:৩৯ অপরাহ্ণ


জয়পুরহাট প্রতিনিধি :


জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলায় কৃষক সামসুল হত্যা মামলায় দশজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সোমবার (০৩ জুন) বেলা ১২টায় জয়পুরহাটের অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. নূরুল ইসলাম এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো, জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার মহব্বতপুর গ্রামের হাফেজ উদ্দীনের ছেলে ছাবদুল, ছাবদুলের স্ত্রী ফাতেমা বেগম, ছেলে হেলাল, আলম হোসেন, ইদ্রিস আলী, রেজাউল ইসলাম, আলম হোসেনের স্ত্রী ফারজানা বেগম, হেলাল হোসেনের স্ত্রী লিলিফা বেগম, আমেজ উদ্দীনের ছেলে হেলাল উদ্দীন ও জিয়াউল হকের স্ত্রী ফুত্তি বেগম।

অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় মহব্বতপুর গ্রামের আব্দুস সামাদ মণ্ডলের ছেলে মিলন হোসেন ও বছির উদ্দীনের ছেলে আব্দুল হামিদকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১১ সালের ৩১ অক্টোবর দুপুরে মকবুল ইসলাম তার ছেলে সামছুল ইসলাম ও আলা উদ্দিনকে নিয়ে জমিতে কাজ করছিলেন। এসময় প্রতিপক্ষের লোকজন পরিকল্পনা অনুযায়ী হাঁসুয়া, দা’, কোদাল, রড ও লাঠিসোটা নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালান। এতে সামছুল ইসলাম গুরুতর আহত হলে তাকে জয়পুরহাট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে নেওয়া হয় তাকে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় বাদী হয়ে নিহতের স্ত্রী মেরিনা বেগম ১১ নভেম্বর ক্ষেতলাল থানায় ১২ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে সোমবার দুপুরে আদালত এ রায় দেন।

এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট খাজা শামছুল আলম বুলবুল। আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আহসান হাবিব চপল।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ