জলদস্যুদের জিম্মির পর নাটোরে ফিরলেন নাবিক জয় মাহমুদ

আপডেট: মে ১৫, ২০২৪, ৭:৫৮ অপরাহ্ণ


নাটোর প্রতিনিধি:


সোমালি জলদস্যুদের হাতে জিম্মির ৬৪ দিন পর জয় মাহমুদ তার নিজ বাড়ি নাটোরের নিজ বাড়িতে ফিরেছেন। এতে পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনের মাঝে ঈদের আনন্দ চলছে। বুধবার (১৫ মে) সকালে নাবিক জয় মাহমুদ জেলার বাগাতিপাড়া উপজেলার ১নং পাঁকা ইউনিয়নের সালাইনগর দক্ষিণপাড়া নিজ গ্রামে ফিরেন।
তিনি উপজেলার একই এলাকার জিয়াউর রহমানের ও আরিফা বেগম দম্পতির ছেলে।

জয়ের মা আরিফা বেগম বলেন, ছেলে ফিরে আসায় যেন প্রাণ ফিরে এসেছে। প্রতিটি দিন ছেলের চিন্তায় কেটেছে তার। তবুও আশায় ছিলেন তিনি। ছেলে ফিরে আশায় যেনও আনন্দে মমেতেছে পুরো পরিবার। ছেলে ফিরে আশায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জাহাজ কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

জয়ের বাবা জিয়াউর রহমান জানান, ছেলের জিম্মির খবর শুনে মনে হয়েছিল আর ফিরবে না আমার ছেলে। তবুও অনেক আশায় ছিলাম। আল্লাহ কাছে কত দোয়য়া করেছি। আল্লাহপাক আমার ছেলেকে ফিরিয়ে দিয়েছেন।

নাবিক জয় মাহমুদ বলেন, সোমালিয়াতে ৩৩ দিন আটক ছিলো, গত কালকেই সাইন আপ করছে। আটক হয়ার পর আর বাড়ি ফিরতে পারবেন কিনা সেই আতঙ্কে ও কষ্টে ছিলো। দস্যুরা সবসময় তাদের দিকে বন্দুক তাক করে রাখত। জিম্মি অবস্থায়ও তারা সেখানে রোজা পালন করছেন। সবার দোয়ায় ৩৩ দিন পর তাদের ছেড়ে দেয় দস্যুরা।

উল্লেখ্য, গত ১২ মার্চ ভারত মহাসাগরে সোমালিয়ার জলদস্যুদের হাতে বাংলাদেশি পণ্যবাহী একটি জাহাজ এমভি আবদুল্লাহ এবং ২৩ নাবিক ও ক্রুকে আটক সোমালিয়ান জলদস্যুরা। প্রায় ১ মাস জিম্মি থাকার পর গত ১৪ এপ্রিল ভোররাতে জলদস্যুদের কবল হতে এমভি আবদুল্লাহসহ ২৩ নাবিক মুক্ত হোন।

Exit mobile version