জাপানে বঙ্গবন্ধুর ১০১তম জন্মবার্ষিকী উদযাপিত

আপডেট: মার্চ ১৭, ২০২১, ২:০৫ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


জাপানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশুদিবস উদযাপিত হয়েছে।
বুধবার (১৭ মার্চ) টোকিওর বাংলাদেশ দূতাবাস এ তথ্য জানায়।
টোকিওর বাংলাদেশ দূতাবাসে সকালে অনুষ্ঠানের শুরুতে দূতাবাস প্রাঙ্গণে দূতাবাসের কর্মকর্তা–কর্মচারীদের সঙ্গে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শাহাবুদ্দিন আহমদ। পরে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন রাষ্ট্রদূত। এসময় জাতির পিতার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।
অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত শাহাবুদ্দিন আহমদ বলেন, আজ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মবার্ষিকী। দিনটি আমাদের জন্য আনন্দের ও গর্বের, কারণ, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্র সৃষ্টি হতো না, আমরা পেতাম না স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র। বঙ্গবন্ধু শিশুদের ভালোবাসতেন, তাই আনন্দঘন এ দিনটিকে সরকার জাতীয় শিশুদিবস হিসেবেও পালন করছে। এ শুভদিনে আমি সব শিশু-কিশোরকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।
অনুষ্ঠানের পরবর্তী অংশে অনলাইন আলোচনা অনুষ্ঠানের শুরুতে বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারের সব নিহত সদস্য এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের সব শহীদের আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। পরে দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দেওয়া বাণী পাঠ করা হয়। উল্লেখযোগ্য সংখ্যক জাপানি নাগরিক ও প্রবাসী বাংলাদেশি এ আয়োজনে অংশ নেন।
এছাড়া জাপান প্রবাসী বাংলাদেশিদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের ভিডিও চিত্র এবং জাতির পিতার জীবন ও কর্মের ওপর বিশেষ প্রামাণ্যচিত্র ‘আমাদের বঙ্গবন্ধু’ প্রদর্শন করা হয়। এ বছর মুজিববর্ষ উপলক্ষে টোকিও দূতাবাস স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনলাইনে কুইজ ও শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। ১৭ মার্চকে আরও বর্ণিল করতে প্রত্যেক প্রতিযোগিতায় ১৭ জন অংশগ্রহণকারীকে বিজয়ী নির্বাচিত করা হয়।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ