জিম্বাবুয়ের জয়ে জিতলো ক্রিকেটও

আপডেট: জুলাই ১১, ২০১৭, ১২:৪২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


বোলিংয়ের পর ব্যাটিংয়েও শ্রীলঙ্কার পথের কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছেন রাজা। ছবি: এএফপি

লক্ষ্যটা খুব বড় ছিল না। ২০৪ রানরে লক্ষ্যে শুরুটা যেমন হওয়ার দরকার ছিল, জিম্বাবুয়ের শুরুটা হয়েছিল ঠিক তেমনিই। কিন্তু সুন্দর শুরুর পরেও তারা তো প্রায় পথ হারিয়েই ফেলেছিল। একটার পর একটা উইকেট হারিয়ে সংশয়ে ফেলেছিল ঐতিহাসিক উপলক্ষটাকে। তবে তাদের ব্যাটিং-ধসও শ্রীলঙ্কার লজ্জার ইতিহাসে বাধা হতে পারল না। শ্রীলঙ্কাকে ৩ উইকেটে হারিয়ে সিরিজ জিতে নিয়েছে জিম্বাবুয়ে। যে জয়ে হাসল ক্রিকেটও!
২০০১-০২ মৌসুমে বাংলাদেশে এসে ওয়ানডে সিরিজ জিতেছিল হিথ স্ট্রিক ও অ্যান্ডি ফ্লাওয়াররা। এরপর থেকেই খরা চলছিল জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটে। বিদেশের মাটিতে টেস্ট খেলুড়ে দলের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জেতার স্বাদ ভুলে গিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। ভুলে যাওয়া সে স্বাদ গতকাল আবারো ফিরে পেল তারা। সেটাও কী দাপটের সঙ্গে। ৭১ বল হাতে রেখে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে দিয়েছেন সিকান্দার রাজারা।
বলের ব্যবধান আরও অনেক বেশি হতে পারত। ব্যাটিং-ধসটাই একটু ঝামেলা বাধিয়ে দিয়েছিল। ২০৪ রানে লক্ষ্যে ২৪ ওভারে ১ উইকেটে ১৩৭ রান করে ফেলেছিল জিম্বাবুয়ে। সলোমন মায়ার (৩২ বলে ৪৩), হ্যামিল্টন মাসাকাদজা (৭৩) ও তারিসাই মুসাকান্দা (৩৭) সহজ জয়ের পথে এগিয়ে নিচ্ছিলেন দলকে। হঠাৎ এক দমকা হাওয়া। ৩৮ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে সহজ জয় নয়, হারের শঙ্কাই চোখ রাঙাচ্ছিল জিম্বাবুয়েকে। কিন্তু পুরো টুর্নামেন্টে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা সিকান্দার রাজা (২৭*) মাথা ঠান্ডা রেখে দলকে টেনে নিলেন। সঙ্গী পেলেন অধিনায়ক ক্রেমারকে। বোলিংয়ে এ দুজনই ধস নামিয়েছিলেন শ্রীলঙ্কার ব্যাটিংয়ে। জয় এনে দেওয়ার সময় যে এ দুজনই জুটি বাঁধবেন, এটা হয়তো নিয়তি নির্ধারণ করে দিয়েছিল।
সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতেই একটি রেকর্ড গড়েছিল জিম্বাবুয়ে। শ্রীলঙ্কার মাটিতে প্রথম জয়। সেটাও ৩০০ তাড়া করে শ্রীলঙ্কার মাটিতে জয়ের প্রথম ঘটনা। তবে সিরিজ শেষে সে রেকর্ডকেও বড্ড খেলো মনে হচ্ছে। কদিন আগেই আফগানিস্তানের মতো উঠতি শক্তির কাছে একের পর এক সিরিজ হেরেছে জিম্বাবুয়ে। পেছাতে পেছাতে ওয়ানডেতে ১১তম দল এখন গ্রায়েম ক্রেমাররা। সে দলই শ্রীলঙ্কাকে তাদেরই মাঠে এসে সিরিজ জিতে গেল! এ জয় শুধু জিম্বাবুয়ের নয়, এ জয় তো ক্রিকেটেরও!-প্রথম আলো অনলাইন