জুমে শুনানির সময় মাদক, নগ্নতার অভিযোগে বরখাস্ত বিচারক

আপডেট: নভেম্বর ২৬, ২০২২, ২:৩৪ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


ভিভিয়ান পোলানিয়া। ৩৪ বছর বয়সী এ নারী কলম্বিয়ার একজন বিচারক।
কিন্তু পেশার বাইরে তিনি ফ্যাশন সচেতন। শরীরজুড়ে আছে বিভিন্ন ট্যাটু। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করেন নগ্ন-অর্ধনগ্ন ছবি।
ব্যক্তি জীবনে একজন মানুষ তার পছন্দের যেকোনো কাজ করতে পারে। কিন্তু বিচারকের মতো পদে থেকে কোনো মামলার শুনানিতে বসে ধূমপান ও অর্ধনগ্ন হওয়া মোটেই সমীচীন নয়।

যে কারণে ভিভিয়ান পোলানিয়াকে তিন মাসের জন্য বরখাস্ত করা হয়েছে।
ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের খবরে বলা হয়েছে, একটি মামলার শুনানিতে অংশ নিয়েছিলেন কলম্বিয়ান বিচারক ভিভিয়ান পোলানিয়া। শুনানি চলছিল ভার্চুয়াল জুম মিটিংয়ে। এ সময় তিনি অর্ধনগ্ন হয়ে যান। পরে একটি সিগারেট ধরান। মিটিংয়ে পোলানিয়াকে খামখেয়ালি দেখাচ্ছিল।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) ওই প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়, শুনানির ৩৩ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে গেছে। যেখানে নিজ রুমে আরাম করে শুয়ে থাকতে দেখা যায় বিচারক ভিভিয়ান পোলানিয়াকে। তিনি সিগারেটের মাধ্যমে মাদক গ্রহণ করছিলেন।
এ সময় আদালতের প্রসিকিউটার পোলানিয়াকে তার ক্যামেরা চালু বলে জানান। তাৎক্ষণিক ক্যামেরা বন্ধ করে দেন পোলানিয়া। কিন্তু শুনানি চলমান থাকে।

এ ঘটনায় ভিভিয়ান পোলানিয়ার বিরুদ্ধে এক আইনজীবী কলম্বিয়ার ন্যাশনাল কমিশন অব জুডিশিয়াল এথিক্সের কাছে লিখিত অভিযোগটি করেছেন। পরে কমিশন এক বিবৃতিতে পোলানিয়াকে বরখাস্তের কথা জানায়। বিবৃতিতে বলা হয়, পোলানিয়ার বিরুদ্ধে বরখাস্তের আদেশ আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।

ঘটনাটি নিয়ে আত্মপক্ষ সমর্থন করেছেন বিচারক পোলানিয়া। তার দাবি, শুনানি চলাকালে তিনি বিছানায় শুয়েছিলেন। কারণ তিনি উদ্বেগে ভুগছিলেন।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ