জোড়া ইঞ্জিনে বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিমানের যাত্রা শুরু

আপডেট: জানুয়ারি ২৭, ২০২০, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বাণিজ্যিক বিমান নির্মাণ সংস্থা বোয়িংয়ের তৈরি জোড়া ইঞ্জিনের বিশ্বের সর্ববৃহৎ একটি বিমান প্রথমবারের মতো সফলভাবে ফ্লাইট পরিচালনা করতে সক্ষম হয়েছে। জোড়া ইঞ্জিনের এই বিমানটির মডেল হল বোয়িং ৭৭৭-এক্স। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে।
বিবিসি বলছে, গত বছর বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স মডেলের দুটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ৩৪৬ জন আরোহী নিহত হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে নামকরা এই বিমান সংস্থা। তাই নিজেদের ভাবমূর্তি ফিরিয়ে আনতেই এমন উদ্যোগ তাদের। এছাড়া ২০২০ সাল থেকে ‘৭৩৭ ম্যাক্স’ বিমান নির্মাণ বন্ধের ঘোষণা তারা আগেই দিয়েছিল।
যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটল থেকে পরীক্ষামূলক ওই বিমানটি উড্ডয়ন করা হয়। এর আগে চলতি সপ্তাহে আরও দুবার বিমানটির উড্ডয়নের চেষ্টা করা হলেও বৈরী আবহাওয়ার কারণে তা সম্ভব হয়নি। শেষমেষ রোববারের ফ্লাইটটি সফলভাবে উড্ডয়ন করা গেছে। আগামী বছর এমিরেটসের বহরে যুক্ত হওয়ার আগে আরও পরিক্ষা চালানো হবে।
বোয়িংয়ের তৈরি ২৫৩ ফুট দীর্ঘ এই যাত্রীবাহী বিমানটি চলতি বছর থেকেই বাণিজ্যিকভাবে চলাচল করার কথা থাকলেও কারিগরি জটিলতার কারণে তা বিলম্বিত হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় শনিবার সকাল দশটায় সফলভাবে উড্ডয়নের ৩ ঘণ্টা ৫১ মিনিট পর বিমানটি অবতরণ করে। বোয়িং ৭৭৭ এর মিনি জাম্বুর বৃহৎ রুপ বোয়িং ৭৭৭এক্স।
বোয়িংয় ৭৭৭এক্স এর বিপণন পরিচালক উয়েন্ডি সোয়ার্স বলেন, ‘আমরা একটি কোম্পানি হিসেবে কতটা ভালো রতে পারি এটা সেই ক্ষমতার প্রতিফলন।’ বোয়িং বলছে, তারা ইতোমধ্যে ৩০৯টি বিমান বিক্রি করেছে। যার প্রতিটির মূল্য ৪৪২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। বিমানটি একবারে ৩৬০ জন যাত্রী বহন করতে সক্ষম।
তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ