জয়পুরহাটে গৃহবধূ হত্যা মামলায় দুই ভাইয়ের যাবজ্জীবন

আপডেট: অক্টোবর ৩০, ২০২২, ২:৫৮ অপরাহ্ণ

দণ্ডপ্রাপ্ত দুই ভাই

জয়পুরহাট প্রতিনিধি :


জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে জমিজমা নিয়ে বিরোধে এক গৃহবধূকে হত্যার ঘটনায় মামলায় দুই ভাইয়ের যাবজ্জীবন এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। রোববার (৩০ অক্টোবর) দুপুরে জয়পুরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নুর ইসলাম এই রায় দেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার সুতরাইল গ্রামের মোমিনের সঙ্গে প্রতিবেশীর জমিজমা নিয়ে বিরোধ ছিল। ২০০৮ সালের ২ অক্টোবর দিবাগত রাতে মোমিনের স্ত্রী হাসিনা (৩৯)ছোট ছেলেকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত আনুমানিক ১টা থেকে ২টার দিকে বাড়ির পাঁচিল টপকে ঘরে প্রবেশ করে প্রতিবেশী আওলাদ ও দুলাল হাসিনাকে গলাটিপে হত্যা করে।

এ সময় নিহতের ছোট ছেলে মেহেদী আসামিদের চিনে ফেলে। এ ঘটনায় নিহতের শ্বশুর কেরবান আলী সরদার বাদী হয়ে ২০০৮ সালের ৩ অক্টোবর প্রতিবেশী মৃত আব্দুস সালামের ছেলে জহুরুল হোসেন, দুলাল হোসেন (৫৪), আওলাদ হোসেনের (৪৬) নাম উল্লেখ করে ক্ষেতলাল থানায় মামলা দায়ের করেন।

পরবর্তী সময়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই আব্দুল হানান মিয়া ২০০৯ সালের ২৬ জানুয়ারি আদালতে তিন সহোদরের মধ্যে জহুরুল হোসেনের নাম বাদ দিয়ে দুলাল হোসেন ও আওলাদের নামে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলার ১৭ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যতে রোববার দুপুরে এই রায় দেন বিচারক।

মামলার আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট নন্দকিশোর আগরওয়ালা জানান, মামলার এ রায়ে তিনি সন্তুষ্ট হয়নি। তিনি উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।
মামলার বাদী পক্ষের সরকারি কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল বলেন, ‘দীর্ঘ শুনানি শেষে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নুর ইসলাম দুই সহোদরকে প্রতিবেশী নারীকে হত্যার এই দণ্ডের আদেশ দিয়েছেন।’

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ