জয়পুরহাট পৌরসভার সীমানা বর্ধিত করে পল্লী এলাকাকে সংযুক্ত করায় প্রতিবাদ

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০, ৯:৫৩ অপরাহ্ণ

জয়পুরহাট প্রতিনিধি:


জয়পুরহাট পৌরসভার সীমানা বর্ধিত করে ৩টি ইউনিয়নের পল্লী এলাকাকে সংযুক্ত করে প্রকাশিত গেজেট বাতিলের দাবি জানিয়ে সচেতন নগরিকের ব্যানারে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জয়পুরহাট জেলা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, জয়পুরহাট পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজম আলী।
লিখিত বক্তব্যে জানানো হয়, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ পৌর ১ শাখা গত ২ সেপ্টেম্বর গেজেট প্রকাশের মাধ্যমে জয়পুরহাট পৌরসভার সীমানা বর্ধিত করে সদর উপজেলার ২ নম্বর দোগাছি ইউনিয়নের বুজরুক ভারুনিয়া, ৫ নম্বর পুরানাপৈল ইউনিয়নের গোপিনাথপুর এবং ৭ নম্বর বম্বু ইউনিয়নের বম্বু ও হানাইল বম্বু মৌজাকে জয়পুরহাট পৌর এলাকার শহর এলাকা ঘোষণা করে। জয়পুরহাট পৌরসভা কর্তৃপক্ষ এ সমস্ত পল্লী এলাকাকে শহর এলাকা ঘোষণা করার অভিপ্রায় ব্যক্ত করায় তা গেজেট আকারে প্রকাশ করা হয় বলে অভিযোগ করা হয়।
লিখিত বক্তব্যে জানানো হয়, ২০১৫ সালের ৩১ ডিসেম্বর জয়পুরহাট পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় এবং দোগাছি, পুরানাপৈল ও বম্বু ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় গত ২০১৬ সালের ৩১ মার্চ। জয়পুরহাট পৌরসভা নির্বাচনের সময় যখন সন্নিকটে তখন হঠাৎ কওে গোপনে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের সঙ্গে যোগসাজসে সীমানা বর্ধিত করার পাঁয়তারা করে সঠিক সময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠান বাধাগ্রস্থ করতে এই অপচেষ্ঠা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করা হয়। এছাড়া সংশ্লিষ্ট ওই ৩টি ইউনিয়নে যাতে সঠিক সময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠিত না হয় সেই প্রক্রিয়া চলছে বলেও অভিযোগ করা হয়। এতে জয়পুরহাট পৌরসভাসহ ওই তিনটি ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যরা মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়ে ক্ষমতায় থাকার পরিকল্পনা করছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।
লিখিত বক্তব্যে আরো অভিযোগ করা হয়, এই গেজেটে যে সব পল্লী এলাকাকে শহর এলাকা ঘোষণা করা করা হয়েছে ওই সব এলাকার শতভাগ ব্যাক্তি কৃষি পেশার সাথে যুক্ত এবং শতকরা আশিভাগ ভূমি কৃষি প্রকৃতির এবং কৃষি পেশায় জড়িত। শহর এলাকা ঘোষণা সংক্রান্ত বিষয়ে সংশ্লিষ্ঠ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা জড়িত বলে তারা নিজেদের স্বার্থে এই গেজেট বাতিলের আবেদন বা আপত্তি করবেন না। তাই যথাসময়ে নির্বাচনের ব্যবস্থা করা, কৃষি জমিতে চাষাবাদ অব্যাহত রাখা, পল্লী জনসাধারনকে অযথা অতিরিক্ত পৌর করের হাত থেকে রক্ষার জন্য জয়পুরহাট পৌর সীমানা বর্ধিতকরণের প্রকাশিত গেজেট বাতিল করার দাবি জানান উপস্থিত নেতারা।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, জয়পুরহাট পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হোসেন হিমু, আওয়ামীলীগ নেতা নিখিল চন্দ্র মন্ডল, সাজ্জাদ হোসেন সবুজ, ফারুখ হোসেন, কুষকলীগ নেতা জালাল সরকার প্রমুখ।