টিকার ঘাটতি দূর না হলে সামনে বিপদ: জাতিসংঘ মহাসচিব

আপডেট: জুন ১৩, ২০২১, ১২:৩০ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস

কোভিড মোকাবিলায় দরিদ্র দেশগুলোকে মাত্র ১০০ কোটি ডোজ টিকা সরবরাহের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বিশ্বের শিল্পোন্নত দেশগুলোর জোট জি-৭ । কিন্তু তা যথেষ্ট নয় বলে সাফ জানিয়েছেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস। তিনি বলেন, এই মুহূর্তে বিশ্বের জন্য অনেক বেশি টিকার প্রয়োজন। টিকার ঘাটতি দূর না করা গেলে এই ভাইরাস সামনে অধিক শক্তিশালী ও সংক্রামক হয়ে উঠতে পারে।
জি-৭ এর পক্ষ থেকে টিকা সহায়তা আশ্বাসের পরই প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে নানা মহলে। এমনকি টিকা বিতরণ নিয়ে সুদূর প্রসারী পরিকল্পনার অভাব রয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে দাতব্য সংস্থা অক্সফামের স্বাস্থ্যনীতি বিষয়ক ব্যবস্থাপক আন্না ম্যারিয়ট বলেন,‘কোভিড মোকাবিলায় বিশ্বজুড়ে ১১শ’ কোটি ডোজ টিকার সরবরাহের প্রয়োজন। অথচ সেখানে জি-৭ নেতারা মাত্র একশ কোটি ডোজ টিকা জোগানের কথা বলছেন। যদি এরকম কিছুই সত্যিই হয়ে থাকে তবে জি-৭ সম্মেলন ব্যর্থ হবে’।
এমন বাস্তবতায় শনিবার এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের মহাসচিব জানান, ‘টিকার ঘাটতি দূর না করা গেলে অদূর ভবিষ্যতে আরও বিপদের সম্মুখীন হতে পারি। জোটের পক্ষ থেকে যে পরিমাণ অনুদানের কথা বলা হয়েছে, তার চেয়ে অনেক বেশি ডোজ আমাদের প্রয়োজন। বৈশ্বিক টিকা পরিকল্পনা গ্রহণ করা জরুরি। যুদ্ধ অর্থনীতিতে সমরাস্ত্র নির্মাণে যেভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়, বর্তমান প্রেক্ষাপটে করোনার টিকা উৎপাদন ও বণ্টনে সেভাবে গুরুত্ব দেওয়া উচিত। যদিও আমরা সুদূর পরিকল্পনা থেকে অনেক দূরে রয়েছি’।
গুতেরেস সতর্ক করে আরও বলেন, ‘ভাইরাসটি আরও শক্তিশালী হয়ে গেলে বর্তমানে বাজারে যে টিকা রয়েছে সেগুলো কোন কাজে নাও আসতে পারে’।
যুক্তরাজ্যের পক্ষ থেকে কমপক্ষে ১০ কোটি টিকা বিতরণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। আর যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে ৫০ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন বিতরণের ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। অন্যদিকে ১০ কোটি দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে কানাডা।
আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামেনেস্টি’র মহাসচিব অ্যাগনেস ক্যামার্ড বলেন, ‘১০০ কোটি ডোজ কোভিড টিকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি মহাসাগর থেকে এক ফোঁটা পানি দেওয়ার মতোই অবস্থা। এতে টিকা সংকট মোকাবিলা কখনোই সম্ভব নয়’।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ