টি বাঁধকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে : লিটন

আপডেট: আগস্ট ২৫, ২০১৭, ১:৪২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


টি-বাঁধ পরিদর্শণ করেন নগর আ’লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার-সোনার দেশ

শহর রক্ষা বাঁধের প্রাণকেন্দ্র টি বাঁধ রক্ষণাবেক্ষণের কাজ পরিদর্শন করেছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে তিনি বাঁধের চারিদিকে ঘুরে দেখেন এবং ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে বিশেষ নজরদারি রাখার আহবান জানান।
এসময় সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, টি বাঁধ ( গ্রয়েন) ক্ষতিগ্রস্ত হলে রাজশাহী শহর রক্ষা বাঁধ ভেঙে শহর তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তিনি সেখানে কিছু সময় অবস্থান করেন এবং বর্তমান অবস্থা দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি ভালো মানের কাজ করার জন্য সকল প্রকার সহযোগিতা করার আশ্বাস প্রদান করেন।
লিটন আরো বলেন, টি বাঁধ রাজশাহী নগরীর বিনোদনের প্রধান কেন্দ্র। পদ্মাপাড়ে নগরবাসী যেন স্বাচ্ছন্দ্যে চলাফেরা করতে পারেন একারণে আমি মেয়র থাকাকালে ব্যাপক পরিকল্পনা গ্রহণ করি। সে পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হয়। পদ্মাপাড় এখন নগরীর অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হয়েছে। আমি আবারো মেয়র নির্বাচিত হলে টি বাঁধকে কেন্দ্র করে ব্যাপক পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে।
এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেসুর রহমান, এএস কন্সট্রাকশন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি বজলুর রহমান ও রাজপাড়া থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনসারুল হক খিচ্চু, সাত নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেনসহ নেতৃবৃন্দ।
ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি বজলুর রহমান বলেন, সার্বক্ষণিক তারা পদ্মার পানির গতিবিধির ওপর নজর রাখছেন। সেইসাথে টি বাঁধের যেন ক্ষতি না হয়, সেজন্য জিও ব্লক তারা বাঁধের উজানে ফেলা অব্যাহত রেখেছেন।