টেক্সাসে ৪৬ লাশ: তাপদহের মধ্যেও ট্রাকটিতে কোনো পানি ছিল না

আপডেট: জুন ২৮, ২০২২, ১১:৫৬ পূর্বাহ্ণ

সান অ্যান্টোনিওর যেখানে ট্রেইলার ট্রাকের ভেতরে ৪৬টি মৃতদেহ পাওয়া গেছে, সেখানে কাজ করছেন আইন প্রয়োগকারী কর্মকর্তারা। ছবি: রয়টার্স

সোনার দেশ ডেস্ক :


যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস রাজ্যের মেক্সিকো সীমান্তের কাছে যে ট্রাকটিতে ৪৬ জন অভিবাসন প্রত্যাশীর লাশ পাওয়া গেছে তাতে কোনো পানি ছিল না এবং তা শীতাতপ নিয়ন্ত্রিতও ছিল না বলে জানিয়েছেন সান অ্যান্টোনিও শহরের দমকল প্রধান চার্লস হুড।

তিনি জানিয়েছেন, ওই ট্রাকটি রেফ্রিজারেটর ট্রেইলার হলেও তাতে ‘কাজ করছে এমন দৃশ্যমান কোনো’ কুলিং ইউনিট ছিল না।
যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় এই শহরটি মেক্সিকো সীমান্ত থেকে আড়াইশ কিলোমিটারের মধ্যে। ওই অঞ্চলে এখন তীব্র তাপদহ চলছে। সোমবারও সেখানে তাপমাত্রা প্রায় ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে উঠেছিল।

হুড বলেছেন, “আমরা একটা ট্রাক খুলে গাদা গাদা মৃতদেহ দেখতে পাবো তা ধারণাও করিনি, এখানে যারা কাজ করতে এসেছেন তাদের কেউ এমনটি কল্পনাও করতে পারেনি।”

সেখানে ৬০ জন অগ্নিনির্বাপণ কর্মী, ২০টি ফায়ার ইঞ্জিন ও ২০টি চিকিৎসা ইউনিট নিয়ে ‘খুব সহজে দ্রæত’ কাজ করা হয় এবং জীবিত ১৬ জনের সবাইকে প্রায় এক ঘণ্টার মধ্যে হাসপাতালে নেওয়া হয় বলে জানান তিনি।
এক সংবাদ সম্মেলনে কথা বলার সময় ৪৬ জনকে মৃত পাওয়ার কথা এবং তাদের মধ্যে কোনো শিশু ছিল না বলে নিশ্চিত করেছেন হুড।

জীবিত ১৬ জনের মধ্যে ১২ জন পূর্ণবয়স্ক এবং চার শিশু আছে এবং হাসপাতালে নেওয়ার সময় তারা সবাই সজাগ ছিল বলে জানিয়েছেন তিনি।
তিনি আরও জানান, এদের সবার শরীর ‘তখনও গরম ছিল’ এবং তারা তাপের কারণে ক্লান্তি ও অবসাদে ভূগছিলেন আর কেউ কেউ হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছিলেন।

হুড জানান, তাদের কাছে যা ছিল তাই দিয়ে ঘটনাস্থলেই অসুস্থদের সেবা করেছেন তারা।
সোমবার স্থানীয় সময় প্রায় ৬টার দিকে দমকল কর্মীদের ঘটনাস্থলে ডাকা হয় এবং তারা সেখানে গিয়ে ট্রাকটির বাইরে একটি মৃতদেহ পায় বলে জানান সান অ্যান্টোনিওর দমকল বিভাগের এই প্রধান।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, কোনো পানি নেই, শীতাতপ নিয়ন্ত্রণের কোনো ব্যবস্থা নেই তারমধ্যে লোকজন গাদাগাদি করে জানালাবিহীন ওই ট্রেইলর ট্রাকটিতে ভ্রমণ করছি, যা একটি ‘নির্দয় পরিস্থিতি’।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ