টেস্ট থেকে ৬ মাসের বিশ্রাম চাইছেন সাকিব!

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৭, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ঢাকা টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে নাকানি চুবানি খাওয়াতে ভূমিকা ছিল সাকিব আল হাসানের। আর সেই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারই কিনা ৬ মাসের বিশ্রাম নেওয়ার কথা ভাবছেন টেস্ট থেকে! বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে ইতোমধ্যে এমন আলোচনাও করেছেন সাকিব। এখন শুধু বাকি আনুষ্ঠানিক পত্র চালা-চালি। বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান এই প্রসঙ্গে নিশ্চিত করেই বলেন সেসব কথা, ‘আসলে আনুষ্ঠানিক চিঠি দিলেই এ নিয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নেব। আমরা শুধু শুনেছি, তবে এখনও এ নিয়ে চূড়ান্ত কিছু হয় নি।’
সাকিব অবশ্য সীমিত ওভারের ম্যাচগুলো খেলে যেতে চান। কিন্তু বিপত্তি টেস্ট নিয়ে। মূলত চাপ কমাতে আপাতত সাদা পোশাকের এই ফরম্যাট থেকে বিরত থাকতে চান তিনি। ধারণা করা হচ্ছে সেই লক্ষ্যে আজই এ নিয়ে হয়তো আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানাবেন। শনিবার ইতোমধ্যে বিসিবি সভাপতি এ নিয়ে তার বাসায় আলোচনাও করেছেন। জানা গেছে, ক্লান্তিজনিত অবসাদ আর নিজেকে উজ্জীবিত করতেই আপাতত টেস্ট খেলতে চাইছেন না তিনি। এই অবস্থায় স্কোয়াড নিয়ে ঝামেলাতেই রয়েছে বিসিবি। কারণ সোমবার দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের টেস্ট দল ঘোষণা করবে বিসিবি।
এমন জটিলতায় বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু মনে করছেন সাকিব হয়তো মত পাল্টাবেন, ‘আমার মনে হচ্ছে সাকিব আসন্ন সফরে টেস্ট খেলবে। আর সে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানালেই আমরা বদলি নিয়ে ভাববো। তাই আপাতত আমাদের মনে হচ্ছে সে টেস্ট দলের একজন সদস্য হয়েই থাকছে।’ সাকিব যদি মত নাই পাল্টান তাহলে আসন্ন দক্ষিণ আফ্রিকা সফর ও ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজে খেলবেন না তিনি। সেটা হলে টাইগারদের টেস্ট পারফরম্যান্সে শূন্যতাই তৈরি করবে!-ক্রিকবাজ।