টোকিও অলিম্পিকস: হকি স্টিক দিয়ে মাথায় বাড়ি!

আপডেট: জুলাই ২৫, ২০২১, ২:৩৩ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


প্রতিদ্বন্দ্বিতার চেয়ে অংশ নেওয়াই মূল মন্ত্র অলিম্পিকের। এখানে সৌহার্দ্য-সম্প্রীতির সুরই মূখ্য। কিন্তু তারপরও কত অনাকাঙিক্ষত ঘটনারই না সাক্ষী হয়ে যায় ‘দা গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ খ্যাত প্রতিযোগিতাটি। এবার যেমন ম্যাচ শেষে স্পেনের এক খেলোয়াড়ের মাথায় হকি স্টিক দিয়ে বাড়ি মেরে বসলেন আর্জেন্টিনার লুকাস রস্সি!
টোকিও অলিম্পিকসে শনিবার আর্জেন্টিনা ও স্পেনের ম্যাচ শেষ হয় ১-১ সমতায়। আর্জেন্টিনার মাতিয়াস রের সাহায্যে মাঠে শুয়ে স্ট্রেচ করছিলেন স্পেনের দাভিদ আলেগ্রে। প্রতিদ্বন্দ্বী দুই দলের মধ্যে তখন বেশ সম্প্রীতির এক আবহ ছিল।
তখনই দৃশ্যপটে এলেন রস্সি আর পাল্টে গেল পুরো চিত্র।
আর্জেন্টিনার ৩৬ বছর বয়সী খেলোয়াড় যেন উড়ে গেলেন আলেগ্রের কাছে। তার মুখের সামনে গিয়ে চিৎকার করে এক পর্যায়ে হাতের হকি স্টিক দিয়ে বাড়ি মেরে বসেন মাথায়। তখনও শুয়েই ছিলেন আলেগ্রে।
রস্সির এক কাণ্ডে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন স্পেনের খেলোয়াড়রা। তাদের একজন আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়ের গলা ধরে তাকে সেখান থেকে সরিয়ে দেন। আম্পায়ার চেষ্টায় করেন খেলোয়াড়দের শান্ত করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে।
এর খানিক পর মাঠ ছাড়েন দুই দলের খেলোয়াড়রা। এই কাণ্ডে রস্সির কোনো শাস্তি হবে কি না এখনও জানা যায়নি।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ