ট্রান্সফরমার চুরির অভিযোগে || বদলগাছীতে হেলাল হত্যার ঘটনায় চেয়ারম্যানসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা

আপডেট: আগস্ট ২৩, ২০১৭, ১২:৫২ পূর্বাহ্ণ

বদলগাছী প্রতিনিধি


নওগাঁর বদলগাছীতে বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চুরির অভিযোগে হেলাল হত্যা ঘটনায় বদলগাছী সদর ইউপি চেয়ারম্যান আবদুুস সালামসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। অপরদিকে ট্রান্সফরমার চুরির ঘটনায় হত্যাকান্ডের শিকার হেলালসহ ৩ জনকে আসামি করে থানায় একটি চুরির মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত রোববার দুপুরের পর হেলালের বড় ভাই বেলাল হোসেন বাদী হয়ে চেয়ারম্যান আবদুুস সালাম, সানাউল হক হিরো, পিন্টু হোসেন, খোরশেদ আলম, আলমগীর হোসেন, অর্জুন কুমার, এরশাদ, গোলাম মর্তুজা রেজা চৌধুরীকে আসামি করে বদলগাছী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে সাবেক মেম্বার গোলাম মর্তুজা রেজা চৌধুরী বাদী হয়ে হত্যাকান্ডের শিকার হেলালসহ ৩ জনকে আসামি করে বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চুরির অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করেন। উল্লেখ্য গত ১৯ আগস্ট শনিবার দিবাগত রাতে সাতগাছি  গ্রাম থেকে কে বা কারা একটি  বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চুরি করে নিয়ে যায়। এর পরের দিন রোববার দুপুরে উপজেলার কোলা ইউপির গয়রা গ্রামের মৃত আবদুর রাজ্জাকের ছেলে হেলাল হোসেন (৩৫) সাইকেল যোগে ওই সাতগাছী গ্রামে গিয়ে একটি খড়ের পালায় তার একটি ব্যাগ রয়েছে বলে খোঁজাখুজি করে। ইতোমধ্যে ওই খড়ের পালার মালিক সঞ্জিত ওই দিন সকালে খড়ের পালাটি ভেঙে খলিয়ানে রৌদ্রে মেলে দিতে গিয়ে একটি ব্যাগ পান। ব্যাগটির ভিতরে ছিল ট্রান্সফরমারের কয়েলের প্রায় ২০ কেজির মত তামার তার, তার কাটার ব্লেড, ট্রান্সফরমার খোলার অন্যান্য যন্ত্রপাতি। ব্যাগ না পেয়ে  হেলাল ওই খড়ের পালার মালিকের সঞ্জিতের বাড়ির লোকজনকে ব্যাগের কথা জিজ্ঞাসা করলে তারা কোন ব্যাগ পায় নি বলে জানায়। যেহেতু  হেলাল ব্যাগের  খোঁজ করছিল এতে ওই খড়ের পালার মালিক সঞ্জিত সন্দেহ করেন এই লোকটি ট্রান্সফরমার চুরি করেছে। এ খবরটি ভাতশাইল গ্রামের সাবেক মেম্বার ও ওই গভীর নলকুপের অপারেটর গোলাম মর্তুজা রেজা চৌধুরীকে মোবাইল ফোনে জানায় সঞ্জিত। ব্যাগ খুঁজে না পেয়ে হেলাল ভাতশাইল গ্রামের উপর দিয়ে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় রেজা মেম্বার পথিমধ্যে হেলালকে আটক করে তার মোটর সাইকেলে তুলে নিয়ে ঘটনাস্থল সাতগাছী গ্রামে যায়। হেলালকে দেখে সাতগাছি গ্রামের লোকজন জানায় এই লোকটি ২দিন থেকে সাতগাছি গভীর নলকুপের আশে-পাশে ঘুরাঘুরি করছিল এবং সে এসে ব্যাগ খোঁজাখুজি করছিল। এ সময় উত্তেজিত জনতা হেলালকে চোর সন্দেহে চড়থাপ্পর দিয়ে বিকেল ৩ টায় চার্জার ভ্যান যোগে বদলগাছী সদর ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আসে। সেখানে ইউনিয়ন পরিষদের হল রুমে হেলালকে আটকে রেখে মারপিট করলে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রাত ৮ টায় হেলালকে বদলগাছী স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু ঘটে। এ বিষয়ে বদলগাছী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জালাল উদ্দিন জানান, মামলা হয়েছে তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয় নি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ