ট্রেনের টিকিট কালোবাজারির অভিযোগে রাজশাহী রেল স্টেশনে দুদকের অভিযান

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২২, ৯:৩২ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


ট্রেনের টিকিট কালোবাজারির অভিযোগ পেয়ে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) একটি দল। হটলাইন ১০৬-এ যাত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজশাহী রেল স্টেশানে এ অভিযান চালান দুদক কর্মকর্তারা। তবে অভিযানে স্টেশনের কোনো বুকিং সহকারীর কাছ থেকে কালোবাজারির উদ্দেশ্যে কেটে রাখা টিকিট উদ্ধার হয়নি। যাত্রীর করা অভিযোগেরও কোনো সত্যতা পায়নি দুদক।

দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমির হোসেন জানান, তার নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি দল স্টেশনে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় স্টেশনের বুকিং অফিস ও টিকেট কাউন্টারে তল্লাশি করা হয়েছে। এর পাশাপাশি টিকিট প্রিন্টের কম্পিউটার ও অন্যান্য যন্ত্রাংশ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা হয়। এ সময় বুকিং সহকারীদের দেহ তল্লাশি এবং তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। স্টেশনের প্লাটফরমে টিটিদের কাছে থাকা জরুরি টিকিট বইও পরীক্ষা করে দেখা হয়। এ সময় তারা কোনো অনিয়ম পাননি।

তিনি বলেন, স্টেশনে যেসব তথ্য পাওয়া গেছে সেগুলো খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে যে জরুরি টিকিট বইটি ব্যবহার করা হচ্ছে তাতে পূর্ব অনুমোদনে কর্তৃপক্ষের স্বাক্ষর রাখতে তাৎক্ষণিকভাবে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া কোনো ধরনের ভোগান্তি ছাড়া যাত্রীদের টিকিট সরবরাহ করারও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

আমির হোসেন জানান, দুর্নীতি দমন কমিশনের হটলাইন ১০৬-এ একজন যাত্রী অভিযোগ করেন যে, রাজশাহী রেল স্টেশনে দ্রুতই টিকিট শেষ হয়ে যাচ্ছে। একই সাথে স্টেশনে দালালদের থেকে অতিরিক্ত দামে টিকিট কিনতে হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।