ট্রেনের দাবিতে রহনপুরে সাবেক সাংসদের সংবাদ সম্মেলন

আপডেট: মার্চ ২০, ২০১৭, ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ

গোমস্তাপুর প্রতিনিধি


রাজশাহী-রহনপুর রুটে সকাল ও রাতে ট্রেন সার্ভিসসহ বিভিন্ন দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ ২ আসনের সাবেক সাংসদ জিয়াউর রহমান। গতকাল রোবরার সকালে রহনপুর বাজার বেগম কাচারীস্থ তার কার্যালয়ে আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে তিনি লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, তার নির্বাচনী এলাকা (গোমস্তাপুর-নাচোল-ভোলাহাট ) উপজেলা ছাড়াও পার্শ্ববতী নওগাঁর নিয়ামতপুর ও পোরশা উপজেলার জনসাধারণ উত্তরাঞ্চলের প্রাচীন রেলস্টেশন দিয়ে দেশের বিভিন্নস্থানে রেলযোগে যাতয়াত করে থাকে। এছাড়া সীমান্তবর্তী এ রেলস্টেশন দিয়ে ভারত ও নেপালের সঙ্গে পণ্য পরিবহন বর্তমানে চালু রয়েছে। যা থেকে রেল ও কাস্টমস লক্ষ্যমাত্রার বহুগুণ বেশি রাজস্ব আয় করছে। এছাড়া রেলওয়ে যাত্রীপরিবহন করেও আশানুরুপ আয় করছে। কিন্তু বিভাগীয় শহর রাজশাহী থেকে সকালে ও রাতে রহনপুর আসার সরাসরি কোন ট্রেন নেই। এজন্য এলাকাবাসী দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছে। এরই অংশ হিসেবে গত ১৩ মার্চ মাননীয় রেলমন্ত্রীর নিকট এলাকাবাসীর পক্ষে বিভিন্ন দাবিতে একটি আবেদনপত্র দাখিল করা হয়েছে। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে, রহনপুর ও নাচোল রেলস্টেশনের জন্য আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট বরাদ্দ, যাত্রীসেবা মান উন্নয়ন, লুপলাইন  বা ইয়ার্ড বৃদ্ধি, রেল ক্রসিং তৈরী, ওভার ব্রিজ  নির্মাণ, কোচ সংখ্যা বৃদ্ধিসহ রাজশাহী-রহনপুর রুটে সকাল ও রাতের ট্রেন সার্ভিস।
ট্রেনের সমাধান হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন, ঈশ্বরদী থেকে রহনপুরের মধ্যে চলাচলকারী (আইআর) এবং সকাল বেলায় রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জের মধ্যে চলাচলকারী কমিউটার ট্রেনটি রহনপুর পর্যন্ত বর্ধিতকরন প্রয়োজন।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের সদস্য মিসেস হালিমা বেগম, রয়েল বিশ্বাস ও রহনপুর পৌর কাউন্সিলর মোজাহার হোসেন।