ঠেঙ্গার চরেই স্থানান্তর করা হবে রোহিঙ্গাদের

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৭, ১:১৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



রোহিঙ্গাদের বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্তের সঙ্গে একমত সংসদীয় কমিটিও চাইছে নোয়াখালীর ঠেঙ্গার চরেই স্থানান্তর করা হোক তাদের। অস্থায়ী ভিত্তিতে হলেও যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের সেখানে স্থানান্তরের প্রস্তাব করেছে কমিটি।
রোববার বিকেলে জাতীয় সংসদে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এই প্রস্তাব করা হয়।
বৈঠকে রোহিঙ্গাদের ঠেঙ্গার চরে নিতে সরকারের পরিকল্পনার প্রতি সমর্থন জানিয়ে বলা হয়, ঠেঙ্গার চর বসবাসের উপযুক্ত নয় বলে যে প্রচারণা চালানো হচ্ছে তা সঠিক নয়। এই অপপ্রচারের বিরুদ্ধে নিন্দা জানায় কমিটি। রোহিঙ্গাদের প্রতি অমানবিক আচরণের প্রশ্নই ওঠে না। বাংলাদেশ দীর্ঘদিন ধরে যেভাবে তাদের প্রতি মানবিক আচরণ করছে, তাতে এ ধরনের প্রশ্ন উত্থাপন অযৌক্তিক।
এখন পর্যন্ত যেসব রোহিঙ্গা বাংলাদেশে বসবাস করছে এবং যারা নতুনভাবে প্রবেশ করেছে তাদের মায়ানমার কর্তৃক ফিরিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখার সুপারিশ করা হয় বৈঠকে। একইসঙ্গে রোহিঙ্গা সমস্যাটির উৎপত্তি যেহেতু মায়ানমারের, তাই এর সমাধান মায়ানমারে মাধ্যমেই করার তাগিদ দেওয়া হয়। এজন্য বিশ্ব সম্প্রদায়কে সম্পৃক্ত করে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে এ সমস্যাটি সমাধানের জন্য বৈঠকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখারও সুপারিশ করা হয়।
সভাপতি ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, গোলাম ফারুক খন্দকার প্রিন্স, রাজী মোহাম্মদ ফখরুল ও সেলিম উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হকসহ মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন বৈঠকে।- বাংলানিউজ