ড. সারোয়ার জাহানের জন্মদিন আজ

আপডেট: মার্চ ২, ২০১৭, ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক



বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও সঙ্গীতজ্ঞ প্রফেসর ড. সারোয়ার জাহানের ৭৪ তম জন্মবার্ষিকী আজ। তিনি ১৯৪৩ সালের ২ মার্চ পশ্চিমবঙ্গের মালদহ জেলার কৃষ্ণপুরে জন্ম গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে নিজ পরিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার বিনোদপুরে স্থানান্তরিত হলেও তাঁর বেড়ে ওঠা রাজশাহী শহরে। শিক্ষা জীবনও কেটেছে রাজশাহীতে। তিনি ১৯৫৯ সালে মাধ্যমিক, ১৯৬১ সালে উচ্চ মাধ্যমিক, ১৯৬৪ সালে রাজশাহী সরকারি কলেজ থেকে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে ¯্নাতক ও পরের বছর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ¯্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি কর্মজীবনের শুরুতে ১৯৬৯ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে অস্থায়ী প্রভাষক হিসেবে যোগ দেন এবং পরবর্তীতে সেখানেই স্থায়িত্ব লাভ করেন। এছাড়াও তিনি ১৯৮৩ সালে বঙ্কিমচন্দ্রের উপন্যাসে সামাজিক প্রক্রিয়া ও শৈল্পিক প্রভাব নিয়ে গবেষণা কর্মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। প্রফেসর ড. সারোয়ার জাহান ছিলেন একাধারে শিক্ষাবিদ, গীতিকার, সুরকার, বেতার ও টেলিভিশন শিল্পী। কর্মজীবনে তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রধান, ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের পরিচালকসহ নানা দায়িত্ব পালন করেছেন। সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে তাঁর ছিল অবাধ বিচরণ। মাত্র ১৫ বছর বয়সে ওস্তাদ আব্দুল জব্বারের নিকট মার্গ সঙ্গীতে তালিম গ্রহণ করেন। ১৯৬৯’ এর গণঅভ্যুত্থানের উত্তাল দিনগুলিতে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে ছিল তার সরব উপস্থিতি। সত্তরের জলচ্ছ্বাস নিয়ে তাঁর লেখা ‘যে শিশু ঘুমালো মায়ের কোলে, ভোর হল তার সাগরের বুকে’ গানটি আজও মর্মস্পর্শী গানের তালিকায় স্থান করে রেখেছে। মহান মুক্তিযুদ্ধে ভ্রাম্যমান শিল্পী গোষ্ঠীর পরিচালক এবং স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের নিয়মিত শিল্পী হিসেবে অসামান্য অবদান রেখেছেন তিনি। এ সময় তাঁর রচিত এবং সুরে অনেক গান নিজ কণ্ঠ ছাড়াও অন্য শিল্পীর কণ্ঠে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রে প্রচারিত হয়। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য গান হচ্ছে-‘‘সাত কোটি আজ প্রহরী প্রদীপ, বাংলার ঘরে জ্বলছে।’’ বিভিন্ন সময় তিনি রেডিও, টেলিভিশনে সঙ্গীত বিষয়ক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছেন। তিনি ছিলেন একজন দক্ষ সংগঠক। তার হাতে তৈরি হয়েছে উত্তরণ শিল্পী গোষ্ঠী, জড়িত থেকেছেন গীতাঞ্জলি সঙ্গীত প্রতিষ্ঠানের সাথে। তার সাহিত্য কর্মের মধ্যে রয়েছে গবেষণা গ্রন্থ বঙ্কিম উপন্যাসে মুসলিম প্রসঙ্গ এবং বঙ্কিমচন্দ্রের উপন্যাস: মূল্যায়নের পালাবদল, বাংলা উপন্যাসের সেকাল একাল উল্লেখযোগ্য। জীবনী গ্রন্থের মধ্যে লিখেছেন আবুল ফজল, জহির রায়হান, সুনীল কুমার মুখোপাধ্যায়, শেখ গোলাম মকসুদ হিলালী, চৌধুরী ওসমান প্রভৃতি। এই গুণী মানুষটি ২০০০ সালের ৩ মে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে পৃথিবী থেকে চিরতরে বিদায় নেন। তিনি মৃত্যুর আগে পর্যন্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা ও টিএসসিসি’র পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।
তাঁরই স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ২০০১ সাল থেকে সারোয়ার জাহান স্মৃতি সংসদ রাজশাহীতে সঙ্গীত প্রতিযোগিতা আয়োজন করে আসছে। ভবিষ্যতে সংগীত প্রতিযোগিতাটি জেলা ভিত্তিক করবার পরিকল্পনা রয়েছে। ২০১৭ সালে সারোয়ার জাহান স্মৃতি সংসদ আয়োজিত সংগীত প্রতিযোগিতায় দেশাত্মবোধক, রবীন্দ্র সংগীত ও নজরুল সংগীত শাখায় মোট ১৫৬ জন প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন। প্রফেসর ড. সারোয়ার জাহান এর ৭৪ তম জন্মবার্ষিকীকে স্মরণ করে আগামী ১২ মার্চ, ২০১৭ রোববার সন্ধ্যায় ঘোড়ামারা পদ্মা মঞ্চে সংগীত প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণী ও সংগীতানুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ