ঢাকায় ভাস্কর্য সরানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ-মিছিল

আপডেট: মে ২৭, ২০১৭, ১২:৩২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


রাজধানী ঢাকায় সুপ্রীম কোর্ট চত্বর থেকে একটি ভাস্কর্য অপসারণের প্রতিবাদে বের করা একটি মিছিল পুলিশ ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা থেকে ওই মিছিলটি বের করা হয় ‘ছাত্র-জনতার প্রতিবাদ’ এই ব্যানারে এবং সেটি আদালত চত্বরের দিকে যাচ্ছিল।
তবে মূলত বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের নেতা-কর্মীরা এতে অংশ নেন বলে বিবিসি বাংলার সংবাদদাতা আকবর হোসেন ঘটনাস্থল থেকে জানিয়েছেন।
ক্যাম্পাসের দোয়েল চত্বর এলাকা থেকে খানিকটা দূরে পুলিশ মিছিলটিকে বাধা দেয়। এ সময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।
পুলিশ জল কামান ও টিয়ার গ্যাস ব্যবহার করে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। আন্দোলনকারীরা বলেছেন সংঘর্ষের সময় কমপক্ষে পাঁচজন আহত হয়েছেন। আটক করা হয়েছে কয়েকজনকে। পুলিশ বলেছে, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে তাদেরকে ব্যবস্থা নিতে হয়েছে।
শুক্রবার দিনগত রাতে সুপ্রিম কোর্টের সামনে থেকে ভাস্কর্যটি সরিয়ে নেয়া হয়। এর আগে কয়েক সপ্তাহ ধরে বেশ হেফাজতে ইসলাম সহ কয়েকটি ইসলামপন্থী সংগঠন আদালত চত্বর থেকে ‘গ্রীক দেবীর মূর্তি’ অপসারণের দাবিতে আন্দোলন করছিল। রোজা শুরুর আগেই এটি অপসারণে তারা সর্বশেষ সময় বেধে দেয়।
ভাস্কর্যটির নির্মাতা মৃণাল হকের তত্ত্বাবধানে এটি সরিয়ে আদালত এলাকার পেছন দিকে রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে বিক্ষোভকারীরা ভাস্কর্যটিকে ন্যায় বিচারের প্রতীক হিসেবে বর্ণনা করে এটিকে পূণঃস্থাপনের দাবি জানিয়েছে।
মিছিল ছত্রভঙ্গ করার প্রতিবাদ ও ভাস্কর্য পূণঃস্থাপনের দাবিতে প্রতিবাদকারীরা আজ শনিবার সারা দেশে বিক্ষোভের ডাক দিয়েছেন।
তথ্যসূত্র: বিবিসি বাংলা