তাইওয়ানে বোমারুসহ ৩৯টি চীনা যুদ্ধবিমানের অনুপ্রবেশ

আপডেট: জানুয়ারি ২৪, ২০২২, ১:৫৬ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


তাইওয়ানের আকাশ প্রতিরক্ষা জোনে আবারও রেকর্ড সংখ্যক চীনের যুদ্ধবিমান অনুপ্রবেশ করেছে। এরমধ্যে বোমারু বিমানও রয়েছে।

তাইওয়ানের দাবি, রবিবার তাদের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আকাশ প্রতিরক্ষা জোনে ৩৯টি যুদ্ধ বিমান শনাক্ত করা গেছে।

দ্বীপটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ৩৪টি ফাইটার বিমানের পাশাপাশি ‘এইচ-৬’ বোমারু বিমানও ছিল।
চীনের বিমানগুলো তাইওয়ান নিয়ন্ত্রিত পাতাস দ্বীপের উত্তর-পূর্ব দিকে উড়ছিল বলে দাবি করছে তাইওয়ান। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক টুইটে আরও জানিয়েছে,

তাৎক্ষণিকভাবে রেডিও সিগন্যাল জারি করা হয়। সতর্কতার অংশ হিসেবে তাইওয়ান নিজেদের বিমান প্রতিরক্ষা ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা মোতায়েন করে। ফের বিমান অনুপ্রবেশের ঘটনায় বেইজিং-এর পক্ষ থেকে প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

২০২১ সালের অক্টোবরের পর রবিবারের ঘটনাটি সবচেয়ে বড় অনুপ্রবেশ বলে দাবি করা হচ্ছে। সেই সময় তাইওয়ানের আকাশ প্রতিরক্ষা এলাকায় ৫৬টি চীনের বিমান অনুপ্রবেশ করে। এর পরের মাসে ২৭টি। এমন অবস্থায় চীনের সঙ্গে তাইওয়ানের সামরিক উত্তেজনা কয়েকগুণ বেড়ে যায়।

তাইওয়ানকে নিজেদের বিচ্ছিন্ন একটি দ্বীপ হিসেবে বিবেচনা করে আসছে চীন। কিন্তু তাইওয়ান নিজেদের স্বাধীন রাষ্ট্র বলে দাবি করে থাকে।

তাইওয়ানকে যেকোনও মূল্যে চীনের সঙ্গে একীভূত করা হবে বলে স¤প্রতি অঙ্গীকার করেন চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং।- বাংলা ট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ