তানোরে কামারগাঁ খাদ্যগুদামের ৬০ মেট্রিকটন ধান গায়েব || আত্মগোপনে এলএসডি

আপডেট: March 26, 2020, 7:13 pm

তানোর প্রতিনিধি


তানোরে কামারগাঁ খাদ্যগুদামে ৬০ মেট্রিকটন ধান কম পাওয়ায় খাদ্যগুদাম সীলগালা করে দেয়া হয়েছে। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসকের নির্দেশে তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো কামারগাঁ খাদ্যগুদাম সীল গালা করে দেন।
সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও একটি সূত্রে জানা গেছে, কামারগাঁ খাদ্যগুদামে ওসি এলএসডি নয়ন কুমার মজুদকৃত ধানের মধ্যে ৬০ মেট্রিকটন ধান অন্যত্র বিক্রি করে দিয়েছেন এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজশাহী জেলা প্রশাসক হামিদুল হক বিষয়টি সরেজমিন তদন্ত করার জন্য রাজশাহী জেলা খাদ্য কর্মকর্তা নাজমুল হক ও জেলা কারিগরি খাদ্য পরির্দক সিহাবুল ইসলামকে নির্দেশ প্রদান করেন।
মঙ্গলবার বিকেলে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে রাজশাহী জেলা খাদ্য কর্মকর্তা, জেলা কারিগরি খাদ্য পরির্দশক তানোর উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তাকে সঙ্গে নিয়ে কামারগাঁ খাদ্যগুদামে গিয়ে ধানের স্টকে ৬০ মেট্রিকটন ধান কম পান।
বিষয়টি জেলা প্রশাসককে অবহিত করা হলে জেলা প্রশাসক তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতোকে ঘটনাস্থলে গিয়ে কামারগাঁ খাদ্যগুদাম সীল গালা করার নির্দেশ দেন।
এবিষয়ে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন, জেলা প্রশাসকের নির্দেশে কামারগাঁ খাদ্যগুদামটি সীল গালা করে দেয়া হয়েছে।
এব্যাপারে কামারগাঁ খাদ্য গুদামের ওসি এলএসডি নয়ন কুমারের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, গত ৩দিন আগে তানোর উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তার মৌখিক নির্দেশে মেসার্স শাহরিয়ার চাউল ও মৃদুল চাউল মিলকে ৩০ টন করে ৬০ টন ধান দেয়া হয়েছে, কিন্তু উপজেলা খাদ্যকর্মকর্তা নিয়মিত অফিসে না আসার কারণে বরাদ্ধপত্র অনুমোদন করা হয়নি।