তানোরে খাওয়ার পানির তীব্র সঙ্কটে ৫২ পরিবার

আপডেট: নভেম্বর ১৭, ২০১৬, ১২:০২ পূর্বাহ্ণ

লুৎফর রহমান, তানোর



রাজশাহীর তানোর উপজেলার মু-ুমালা পৌর এলাকার আইড়া গ্রামে খাওয়ার পানির তীব্র সঙ্কট দেখা দিয়েছে। গভীর নলকূপের সাপলাই পানির ওপর নির্ভর এ গ্রাম গভীর নলকূপে মিটার নষ্টের অজুহাতে ১০ দিনের বেশি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে পানি সরবরাহ। এ কারণেই আইড়া গ্রামে প্রায় ৫২ পরিবার খাবার পানির ব্যাপক সঙ্কটে পড়েছেন।
এসব পরিবারের লোকজন এক কিলোমিটার দূরে পাশের গ্রাম থেকে অল্প পরিসরে পানি এনে জীবন জাপন করছেন। আবার কেউ পুকুরের পানি ফুটিয়ে রান্নাসহ অন্য অন্য কাজকর্ম সারছেন।
স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, নতুন মিটারের টাকা স্থানীয়দের কাছে থেকে নেয়ার জন্য গভীর নলকূপ অপরেটর দেবান্দ চন্দ্র বর্মন ইচ্ছাকৃতভাবে ঠিক করছেন না। পানির অভাবে গ্রামের ৫২ পরিবারের প্রায় চার থেকে ৫০০ জন্য মানুষ ভালোভাবে গোসল, খাওয়া সারতে পারছেন না। অল্পকিছু পানী নারীরা পার্শের গ্রাম থেকে এনে খাচ্ছেন। অনেকে আবার পুকুরের পানি ব্যবহার করছেন।
তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করে নলকূপ অপরেটর দেবান্দন বলেন, মিটার পুড়ে যাওয়ার পরপরই বিএমডিএ কে অবহিত করা হয়েছে। এটি বিএমডির ব্যাপার বলে জানান তিনি।
বিএমডিএ তানোর জোনের সহকারী প্রকৌশলী শরিফুল ইসলাম বলেন, আইড়া গ্রামের গভীর নলকূপের নতুন মিটার পল্লী বিদুৎ অফিসকে লাগানোর জন্য দেয়া হয়েছে। দুই-এক দিনের মধ্যে সময়মতো তারা লাগিয়ে দিবে।
পল্লী বিদুৎ তানোর জোনের সহকারী প্রকৌশলী নজরুল ইসালাম জানান, বিএমডিএ কাজ থেকে মিটার লাগানোর অনুমতি পাওয়া গেছে। যে কোন সময় গভীর নলকূপে মিটার স্থাপন করা হবে।