তানোরে চার দিন ধরে মাদ্রাসাছাত্র নিখোঁজ

আপডেট: জুলাই ১৫, ২০১৭, ১২:১৯ পূর্বাহ্ণ

তানোর প্রতিনিধি


তানোরে চার দিন ধরে নিখোঁজ থাকা মাদ্রাসাছাত্র সুজন আলী-সোনার দেশ

রাজশাহীর তানোরে সুজন আলী (১৫) নামে এক মাদ্রাসা ছাত্র চার দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে। সে উপজেলার মুন্ডুমালা পৌর এলাকার আইড়া গ্রামের আবদুল জব্বারের ছেলে ও নিয়ামতপুর উপজেলার দামকুড়া দারুল কোরআন মাদ্রাসার ছাত্র।
পরিবার সূত্রে জানা গেছে, পরিবারের সদস্যরা গত চার দিন ধরে বিভিন্ন স্থানে ও আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে খোঁজ খবর নিয়ে তার কোন সন্ধান পাননি। সন্ধান না পাওয়ায় গত বৃহস্পবিার দুপুরে নিখোঁজ ছাত্রের বড় ভাই রফিকুল ইসলাম পুলিশের সহযোগিতা চেয়ে তানোর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) দায়ের করেছেন। যার নম্বর-৫১০।
সুজন আলী নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুর উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের দামকুড়া দারুল কোরআন মাদ্রাসায় চার বছর ধরে পড়াশোনা করে আসছিল। বেশ কিছুদিন আগে মাদ্রাসা থেকে নিজ বাড়ি তানোর উপজেলার আইড়া গ্রামে আসে। বাড়িতে কয়েকদিন অবস্থান করার পর গত ১১ জুলাই মাদ্রাসা যাওয়ার উদ্দ্যেশে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। তবে সেদিনই সন্ধ্যায় ওই মাদ্রাসার হুজুর তোফাজ্জুল ইসলাম মোবাইল ফোনে রফিকুলকে তার ছোট ভাই সুজন মাদ্রাসায় আসেন নি বলে জানান। তারপর থেকে নিখোঁজ সুজনকে খোঁজাখুঁজি করেও কোথাও পাচ্ছে না পরিবারের লোকজন।
নিখোঁজ ছাত্রের বাবা আবদুল জব্বার জানান, ‘আমার চার ছেলের মধ্যে সবচেয়ে ছোট ছেলে সুজন আলী। তার গায়ের রং শ্যামলা। উচ্চতা অনুমান পাঁচ ফুট দুই ইঞ্চি হবে। নিখোঁজের সময় তার পরনে ছিল পাঞ্জাবী-লুঙ্গি ও মাথায় সাদা রংয়ের গোল টুপি ছিল। তার মুখমন্ডল গোলাকার। সে শুদ্ধ বাংলা ভাষায় কথা বলে।’ কোনো সুহৃদয় ব্যক্তি এই নিখোঁজ ছাত্রের সন্ধান পেলে ০১৭৫৭-৯৮৪৪৪৯ নম্বরে যোগাযোগ করার জন্য ছাত্রটির বাবা অনুরোধ জানিয়েছেন।
এদিকে তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল ইসলাম নিখোঁজের বিষয়ে নিশ্চিত করে বলেন, এ ব্যাপারে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি দায়ের করা হয়েছে। বিষয়টি বিভিন্ন থানায় বার্তা প্রেরণ করে অবগত করা হয়েছে। পুলিশ বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছে বলেও তিনি জানান।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ