তানোরে সন্ত্রাসী হামলায় সাংবাদিক আহত

আপডেট: এপ্রিল ১৭, ২০২০, ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

তানোর প্রতিনিধি


রাজশাহীর তানোর উপজেলার বাঁধাইড় ইউনিয়নের হাঁপানিয়া গ্রামে পূর্বশত্রুতার জের ধরে মোহাম্মদ লিংকন নামের এক সাংবাদিককে প্রতিবেশী সন্ত্রাসীরা বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেছে। আহত লিংকনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য তানোর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করে। মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) সকাল ৮টার দিকে উপজেলার বাধাঁইড় ইউপির হাপাঁনিয়া নামক গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় লিংকন বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) সকালে ৭ জনকে আসামী করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগ ও স্থানীয় জানা গেছে, পূর্বশত্রুতার জের ধরে ঘটনার দিন প্রতিবেশী সন্ত্রাসী হাকিম ওরফে পাখি (২৫), মেহেদী (২২), আসগার (৩২), নাজমা (৪২), সোহাগী ওরফে গুধি (৪৮), ফাতেমা (৪৪) ও নওশাদ (৫০) বিভিন্ন ধরণের দেশিয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে সাংবাদিক মোহাম্মদ লিংকনের ওপর হামলা চালায়।
এসময় তাদের মারপিটে গুরুতর জখম হয় সাংবাদিক লিংকন।
পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে চিকিৎসার জন্য তানোর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করে। ১৪ এপ্রিল বিকেলে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন লিংকন।
এনিয়ে সাংবাদিক মোহাম্মদ লিংকন বলেন, হাকিম ও তার পরিবারের লোকজন সন্ত্রাসী প্রকৃতির। তাদের অন্যায়-অত্যাচারে গ্রামের মানুষ অতিষ্ঠ। আমি পেশাগত দায়িত্বের জায়গা থেকে গ্রামের বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনার কথা লোক সমাজে তুলে ধরি। এতে সন্ত্রাসী হাকিমসহ অন্যরা ক্ষুব্ধ হয়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট করে।
আমি চিকিৎসায় থাকায় বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) সকালে ৭ জনকে আসামী করে তানোর থানায় অভিযোগ করেছি।
এব্যাপারে অভিযুক্ত হাকিম ওরফে পাখি বলেন, গ্রামে তাদের বংশের নাম ও দাপট আছে। বাব-দাদার আমল থেকে গ্রামের সরকারি খাস জায়গা তারা ভোগ দখল করে আসছেন। কিন্তু লিংকন ওই জায়গা নিয়ে ইদানিং লোকসমাজে খারাপ মন্তব্য করেছে। এজন্য তাকে উত্তম-মাধ্যম দেয়া হয়েছে। এনিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে কিছু করলে হাত-পা কেটে ধরিয়ে দেয়া হবে বলে জানান হাকিম ওরফে পাখি।
এব্যাপারে তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাকিবুল হাসান বলেন, বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ