তানোরে ১৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে স্ত্রীকে তালাক, স্বামী গ্রেফতার

আপডেট: মে ১৩, ২০২৪, ১:১০ অপরাহ্ণ


তানোর প্রতিনিধি:


তানোরে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ১৮ লাখ টাকা হাতিয়ে বিয়ের পাঁচদিন পরই শিক্ষিকাকে ডিভোর্স দেয়া প্রতাকরকে গ্রেফতার করেছে তানোর থানা পুলিশ। গ্রেফতার প্রতারকের নাম নাজির হোসেন (৩৭)। সে তানোর উপজেলার কলমা ইউনিয়নের কলমা গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে। এঘটনায় তানোর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলার বিবরণ, পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, তানোর উপজেলার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকার সাথে এক বছর আগে ফেসবুক পরিচয়ের সূত্র ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরই পর্যায়ক্রমে ওই শিক্ষিকার কাছ থেকে ১১ লাখ ৪০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় প্রতারক প্রেমিক। গত ৩ রা মার্চ ২০২৪ বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে তানোর ভূমি অফিসের সামনের রাস্তায় এক সাথে ৮ লাখ ৬০ হাজার টাকাসহ মোট ১৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় প্রতারক প্রেমিক।

গত ২০ এপ্রিল (প্রেমিকা) সহকারী শিক্ষিকাকে তানোর পৌরসভার কাজী আব্দুল মতিন কাজীর কাছে নিয়ে রেজিস্ট্রি করে বিয়ে করে প্রেমিকাকে বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় প্রেমিক নাজির হোসেন।

বিয়ের পাঁচদিন পর গত ২৫ এপ্রিল ২০২৪ ডাকযোগে ডিভোর্স লেটার প্রেমিকার বাবার বাড়ির ও স্কুলের ঠিকানায় পাঠিয়ে দেয় প্রেমিক। গত ১১ মে শনিবার প্রতারক প্রেমিক তার বাড়ি কলমা গ্রামে আসলে উভয় পরিবারের সদস্য তাকে আটক রেখে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করেন।

বিষয়টি সমাধানে ব্যর্থ হন উভয় পক্ষ ও স্থানীয়রা। পরে রোববার (১২ মে) দুপুরে তানোর থানা পুলিশকে খবর দেয়া হলে পুলিশ প্রতারক প্রেমিক নাজিরকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। এঘটনায় সহকারী শিক্ষিকা প্রেমিকা বাদি হয়ে তানোর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রহিম বলেন, এঘটনায় তানোর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। প্রতারক প্রেমিককে আটক করা হয়েছে। সোমবার (১৩ মে) তাকে আদালতে হাজির করা হবে। তিনি বলেন, প্রতারক প্রেমিক এর আগেও ২ টি বিয়ে করেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ