তানোরে ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে দিঘি খনন শুরু

আপডেট: মার্চ ১৫, ২০১৭, ১২:২০ পূর্বাহ্ণ

লুৎফর রহমান, তানোর


রাজশাহীর তানোরে ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে বিচ্ছিন্ন আড়াদিঘী গ্রামে দিঘি খনন কাজ শুরু করা হয়েছে। আড়াদিঘী গ্রামের একমাত্র দিঘিটি (পুকুর) খনন কাজ শুরু হওয়ায় গ্রামবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণ ও পানির সমস্যা দূর হতে চলেছে। ফলে গ্রামবাসীর মধ্যে উৎফুল্লাতার সৃষ্টি হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে, ভূগর্ভস্থ পানির উপর চাপ কমানোর জন্য গ্রামবাসীর গোসল, গৃহস্থালী ও অন্য কাজ এবং পানির স্থর পূনর্ভনের উদ্দ্যেশ্যে তালন্দ ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ডে আড়াদিঘী গ্রামে ডাসকো-এসআরসি-আইডব্লিউআরএম প্রকল্পের আর্থিক সহায়তায় তালন্দ ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে একটি পুকুর পূনর্খননের কাজ শুরু হয়েছে।
এর মধ্যে জনগণের অংশীদারিত্ব ৮ লাখ ৪ হাজার ২৯৬ টাকা, ইউনিয়ন পরিষদের অংশীদারিত্ব ৪ লাখ ২হাজার ১৪৮ টাকা এবং বেসরকারি সংস্থা ডাসকোর অনুদান হিসাবে ২৮ লাখ ১৫ হাজার ৩৫ টাকা বরাদ্ধ দেয়। মোট ৪০ লাখ ২১ হাজার ৪৯৭ টাকা ব্যয়ে এ দিঘি পূনর্খনন কাজ চলছে।
দীর্ঘদিন ধরে গ্রামবাসী ওই দিঘীটি খননের জন্য পুকুর মালিকসহ সরকারের বিভিন্ন দফতরে ধর্ণা দিতে থাকে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এলাকায় পানি নিয়ে কাজ করা বেসরকারি সংস্থা ডাসকো তালন্দ ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে ওই দিঘী খননের কাজ শুরু করেছে। খনন কাজ শুরু হওয়ায় গ্রামবাসীদের মধ্যে উৎফুল্লের সৃষ্টি হয়েছে।
এ বিষয়ে তালন্দ ইউপির চেয়ারম্যান আবুল কাশেম জানান, এর আগে যখন আমি চেয়ারম্যান ছিলাম তখন থেকেই এই দিঘি খননের পরিকল্পনা করেছিলাম। কিন্তু তখন কোন দাতা গোষ্ঠী আমাকে সহযোগিতা না করায় কাজটি করা সম্ভব হয় নি। এবার ডাসকোর সহযোগিতায় আড়াদিঘী গ্রামের এই দিঘিটি প্রায় ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে খনন কাজ শুরু করা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ