তানোর ইউএনও’র স্ত্রী-সন্তানও করোনায় আক্রান্ত

আপডেট: June 28, 2020, 1:05 pm

তানোর প্রতিনিধি:


রাজশাহীর তানোর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুশান্ত কুমার মাহাতোর স্ত্রী-সন্তানও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। শনিবার (২৭ জুন) রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় তাদের করোনা শনাক্ত হয়। রাতে বিষয়টি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রোজিয়ারা খাতুন নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে ২৫ জুন জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি অবস্থায় নমুনা পরীক্ষায় তানোর উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও ইউএনও সুশান্ত কুমার মাহাতো করোনায় পজিটিভ হন।
শনিবার রাতে তার স্ত্রী ডা. শাপলা রাণী (২৬) এবং ছেলে শ্রীশান্ত মাহাতো (৪) করোনার টেস্টে পজিটিভ ফল আসে। তারা এখন সকলেই তানোর উপজেলা পরিষদ চত্বরে ইউএনও’র সরকারি বাসভবনে আইসোলেশনে আছেন।
এদিকে গত ২৫ জুন ইউএনও সুশান্ত কুমার মাহাতোর সংস্পর্শে থাকা উপজেলা ডেভেলপমেন্ট ফ্যাসিলেটর এএইচএম ফেরদৌস জামান সিদ্দিকীও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন।
মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে প্রথম থেকেই তানোর উপজেলায় প্রতিদিন মাঠে ছিলেন ইউএনও সুশান্ত কুমার মাহাতো। করোনা পরিস্থিতিতে সৃষ্ট সংকট, হোম কোয়ারান্টাইন নিশ্চিতকরণ, জনসচেতনতা সৃষ্টি ও হাট-বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম স্থিতিশীল, সরবরাহ নিশ্চিতেসহ সরকারি নির্দেশনা পালনে নিরলসভাবে কাজ করছেন ইউএনও সুশান্ত কুমার।
এছাড়াও প্রতিদিন তানোরের বিভিন্ন জনবহুল স্থানসহ হাট-বাজার ঘুরে হ্যান্ডমাইকে ক্রেতা-বিক্রেতাদের করোনার বিষয়ে সচেতন করছেন। স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে মাস্ক, হ্যান্ড গ¬াভস, হাত ধোয়া ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পরামর্শ দিয়েছেন ইউএনও সুশান্ত কুমার।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ