তালেবানের প্রথম বাজেটেই বিশাল ঘাটতি

আপডেট: মে ১৬, ২০২২, ১২:৫৯ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


আফগানিস্তানে গণতান্ত্রিক সরকারকে উৎক্ষাত করে ক্ষমতায় আসা তালেবান তাদের প্রথম বার্ষিক বাজেট ঘোষণা করেছে। এই বাজেট পুরোপুরি অভ্যন্তরীণ রাজস্বের মাধ্যমে বাস্তাবায়ন করা হবে। বাজেটে প্রায় ৪ হাজার ৪০০ কোটি (৪৪ বিলিয়ন) আফগানি মুদ্রার ঘাটতি রয়েছে।

শনিবার (১৪ মে) তালেবান সরকারের উপ-প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা আবুল সালাম হানাফি এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান।
আব্দুল সালাম হানাফি বলেন, তাদের অন্তর্র্বতী সরকার ২২ হাজার ১৪০ কোটি আফগানি মুদ্রা ব্যয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আর এ জন্য ১৮ হাজার ৬৭০ কোটি আফগানি মুদ্রার অভ্যন্তরীণ রাজস্ব আদায়ের কথা জানিয়েছে।

তবে কীভাবে প্রস্তাবিত ব্যয়ের সঙ্গে রাজস্বের বিশাল ঘাটতি পূরণ করা হবে সে বিষয়ে কোনো ব্যাখ্যা দেননি তিনি।
হানাফি বলেন, বিদেশি সহযোগিতা ছাড়াই শিক্ষা, স্বাস্থ্য, উন্নয়ন, প্রতিরক্ষাসহ বিভিন্ন খাতে রাজস্ব থেকে আসা অর্থ খরচ করা হবে। উন্নয়ন প্রকল্পে ২ হাজার ৭৯০ কোটি আফগানি মুদ্রা খরচ করা হবে।

২০২১ সালের আগস্টে ক্ষমতায় আসা তালেবান সরকারকে এখনো অধিকাংশ রাষ্ট্র স্বীকৃতি দেয়নি। এমনকি পশ্চিমা দেশগুলোর সহায়তায় চলা দেশটিতে তালেবান ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে সব ধরনের সাহায্য সহযোগিতা বন্ধ রয়েছে।
তথ্যসূত্র: ভয়েস অব আমেরিকা,

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ