তাসকিনের হাতেই হারলো রাজশাহী

আপডেট: নভেম্বর ১৮, ২০১৬, ১১:৪৬ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক
আগের ম্যাচে একাদশে ছিলেন না তাসকিন আহমেদ। তার পরিবর্তে বিদেশি পেসারদের উপরই আস্থা রেখেছিল চিটাগাং ভাইকিংসের কোচ-ম্যানেজমেন্ট। হয়তো সে ম্যাচে না খেলার ক্ষোভ থেকেই এমন জ্বলে উঠলেন তিনি। রাজশাহী ভাইকিংসের ব্যাটিং লাইন আপ প্রায় একাই গুঁড়িয়ে দিয়েছেন এ পেসার। বিপিএলে নিজের ব্যাক্তিগত সেরা বোলিং করে তুলে নিলেন পাঁচ উইকেট।
শুক্রবার চট্টগ্রামের জহুর আহেমদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে নিজের প্রথম ওভার থেকেই জ্বলে ওঠেন তাসকিন আহমেদ। ইনিংসের পঞ্চম ওভারে বল করতে এসে ফেরান ভয়ংকর হয়ে ওঠা মুমিনুল হককে। এরপর ১৩তম ওভারে আবার বল হাতে নিয়ে ফেরান পাকিস্তানি ড্যাশিং ব্যাটসম্যান ওমর আকমলকে।
তবে কাজের কাজটি করেন ইনিংসের ১৮তম ওভারে। সে ওভারে জোড়া উইকেট তুলে নিয়ে বলতে গেলে একাই ম্যাচ থেকে ছিটকে দেন রাজশাহীকে। লঙ্কান ব্যাটসম্যান মিলিন্দা শিরিবর্ধনেকে আউট করার পরের বলেই বোল্ড করেন মেহেদী হাসান মিরাজকে। এরপর শেষ ওভারে বল করতে এসে ফরহাদ রেজাকে মোহাম্মদ নবির তালুবন্দি করে পাঁচ উইকেট শিকারের আনন্দে ভাসেন এ বোলার।
শেষ পর্যন্ত তার বোলিং ফিগার দাঁড়ায় ৪-০-৩১-৫। চলতি আসরে এটা তাসকিনের অষ্টম উইকেট। তবে নিজেকে একটু দুর্ভাগা ভাবতে পারেন তাসকিন। আরও একটি উইকেট পেলেও পেতে পারতেন তিনি। তার বলে একবার জীবন পেয়েছেন সাব্বির রহমান। সেক্ষেত্রে বিপিএলের সেরা বোলিং ফিগারের মালিক হতে পারতেন তিনি।
তৃতীয় বাংলাদেশি এবং বিপিএলের ষষ্ঠ বোলার হিসেবে এক ইনিংসে পাঁচ উইকেট নেওয়ার কীর্তি গড়লেন তাসকিন আহমেদ। চলতি আসরেই খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে পাঁচ উইকেট পেয়েছিলেন প্রতিপক্ষ দলের আবুল হোসেন রাজু। আর গত আসরে সিলেট সুপার স্টার্সের বিপক্ষে বরিশাল বুলসের হয়ে হ্যাটট্রিকসহ পাঁচ উইকেট পেয়েছিলেন আল-আমিন হোসেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ