তিনটি দায়িত্বই উপভোগ করছেন মুশফিক

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৭, ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



গত কয়েক সিরিজ ধরেই মুশফিকুর রহিমের অধিনায়কত্ব ও উইকেট কিপিং নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। বিভিন্ন মাধ্যম থেকে খবর চাউড় হয়েছে তার এ দুটি দায়িত্ব নিয়ে মোটেও সন্তুষ্ট নন বোর্ড পরিচালকরা। কেবলমাত্র বিকল্প কাউকে না পাওয়াতে মুশফিকের উপরই ভরসা রেখেছে বিসিবি।
ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে বাজে অধিনায়কত্ব ও উইকেট কিপিং নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে আবারও। যদিও প্রশ্নটা বড় আকারে রূপ নিয়েছে ভারতীয় সাংবাদিকদের কাছেই। তিনটি দায়িত্ব একসঙ্গে পালন করা কতটা কঠিন এমন প্রশ্নের উত্তরে মুশফিক সোজা ব্যাটেই খেললেন। স্টেইট ড্রাইভে উত্তর দিলেন তিনি, ‘আমি তিনটি দায়িত্বই উপভোগ করছি। কারণ আমি মাঠে থাকতে ভালোবাসি। আমার মাঠে সময় কাটানোর উপায় হলো সেখানে দায়িত্ব পালন করা, ড্রেসিং রুমে বসে নয়। আমি আমার সব দায়িত্ব ভালোবাসি। তার পরও কিছু হলে সিদ্ধান্ত নেওয়ার লোক আছে বাইরে। তবে আমাকে ব্যক্তিগতভাবে জিজ্ঞেস করলে, আমি বলব তিনটিই দারুণ পছন্দ করি। আর নেতৃত্ব আমার হাতে নেই। বোর্ড চাইলে বিশ্লেষণ করে সিদ্ধান্ত নিতে পারে।’
বাংলাদেশের সেরা ব্যাটসম্যান খেতাবটা মেনে নিতে পারেননি মুশফিক। তার সোজসাপ্টা উত্তর, ‘আমার টেস্ট ব্যাটিং গড় তো ৩৩ বা ৩৪- এর বেশি না। আমি কীভাবে দলের সেরা ব্যাটসম্যান হতে পারি। আমি যদি দু্টি বা তিনটি দায়িত্বে থাকি, তার মানে বোর্ড বা ম্যানেজমেন্ট আমার ওপর আস্থা রাখছে। আমার কর্তব্য হলো তিনটি দায়িত্বই যথাযথ ভালোভাবে পালন করা। আমি যদি তাতে ব্যর্থ হই, সেক্ষেত্রে বোর্ড সিদ্ধান্ত নেবে।’
তিনটি দায়িত্ব এক সঙ্গে পালন করতে কোনও চাপ নিতে হচ্ছে না। বরং দেশের হয়ে তিনটি দায়িত্ব পালন করতে পেরে গর্বিত মুশফিক। যদিও কখনও অব্যহতি দেওয়া হয় সেক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত মেনে নেবেন বলে জানান তিনি, ‘চাপ সব সময়ই থাকে। আমি সব সমযই বলছি আমি গর্বিত, কারণ দেশের হয়ে আমি এমন তিনটা দায়িত্ব পালন করতে পারছি। আমি আমার কাজটা করে যেতে চাই। এখন যদি বোর্ড বা ম্যানেজম্যান্ট মনে করে এটা নিলে বা এটা না করলে আমার ভালো হবে সেই সিদ্ধান্ত তাদের। কিন্তু আমাকে কেউ জিজ্ঞেস করলে আমি বলব, আমি তিনটা কাজ করতেই পছন্দ করি।’-বাংলা ট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ