তিন পৌরসভায় আ’লীগ প্রার্থীর জয়

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১, ১০:২৯ অপরাহ্ণ

দুর্গাপুর, চারঘাট ও নাচোল প্রতিনিধি:


রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের তিন পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা মনোনিত প্রার্থীরা নিরঙ্কুশ বিজয়ী হয়েছেন। এর মধ্যে রাজশাহীর দুর্গাপুরে তোফাজ্জল হোসেন, চারঘাটে একরামুল হক এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে আব্দুর রশিদ ঝালু খান বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।
রাজশাহীর দুর্গাপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকা প্রতীকে ২ হাজার ৪০৭ ভোট বেশি পেয়ে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী তোফাজ্জল হোসেন পুনরায় মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন, বিএনপি মনোনিত প্রার্থী জার্জিস হোসেন সোহেল। চারঘাট পৌরসভা নির্বাচনে ১৪ হাজার ৭৮১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন, নৌকা মনোনিত প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল হক।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে মেয়রপদে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন, আব্দুর রশিদ ঝালু খান। ৪ হাজার ৫১২ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় বারের মত নাচোল পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হলেন।
দুর্গাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহসিন মৃধা জানান, দূর্গাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন এবার দিয়ে পরপর তিনবার মেয়র নির্বাচিত হলেন। রোববার সকাল ৮ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত মোট ১১ টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনিত তোফাজ্জল হোসেন নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৮ হাজার ৮০৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনিত প্রার্থী জার্জিস হোসেন সোহেল ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৬ হাজার ৪০১ ভোট। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী হাসানুজ্জামান সান্টু মোবাইল ফোন প্রতীকে পেয়েছেন এক হাজার ২০৭ ভোট ও জাতীয় পার্টি মনোনিত প্রার্থী হুমায়ুন কবীর লাঙ্গল প্রতীকে ১৩৪ ভোট পেয়েছেন। দুর্গাপুর পৌরসভা নির্বাচনে এবার ৯ টি ওয়ার্ডের ১১ টি কেন্দ্রে মোট ভোটার ছিলো ২১ হাজার ১২৬ জন। এর মধ্যে ১৬ হাজার ৫৮৮ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।
চারঘাট পৌরসভায় একরামুল হক নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তিনি ভোট পেয়েছেন, ১৪ হাজার ৯৮১ টি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনিত প্রার্থী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক মো. জাকিরুল ইসলাম পেয়েছেন ২ হাজার ৮১২টি। চারঘাট পৌরসভা নির্বাচনে ১৭ হাজার ৭৯৩ টি ভোট পড়েছে যা মোট ভোটের ৫৯ দশমিক ১৬ শতাংশ। ভোট বাতিল হয়েছে ৩১ টি। উপজেলায় মোট ভোটার ৩০ হাজার ১২৯ টি। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন, চারঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দা সামিরা।
অন্যদিকে, নাচোল পৌরসভায় ফলাফল সংগ্রহ ও পরিবেশন কেন্দ্রে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা নির্বাচন অফিসার মোতাওয়াক্কিল রহমান বেসরকারি ফলাফল ঘোষণায় আব্দুর রশিদ ঝালু খানকে নাচোল পৌরসভার মেয়রপদে বিজয়ী ঘোষণা করেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান রোজাউল করিম বাবু চামচ প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৮৯২ ভোট। এদিন সকাল থেকেই লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট প্রদানের মধ্য দিয়ে পৌরবাসী তাদের পছন্দের প্রার্থীকে পুনরায় নির্বাচিত করেছেন। এবার নাচোল পৌর মেয়রপদে নির্বাচনে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিলেন। এদের মধ্যে আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনিত বর্তমান মেয়র আব্দুর রশিদ ঝালু খান (নৌকা), বিএনপি দলীয় মনোনীত প্রার্থী মাসউদা আফরোজ হক শুচি (ধানের শীষ), স্বতন্ত্র প্রর্থী আমান উল্লাহ আল মাসুদ (রেল ইঞ্জিন), ও রেজাউল করিম বাবু (চামুচ) প্রতীক। স্বতন্ত্র প্রার্থী রেজাউল করিম বাবু নাচোল উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করে স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে চামচ প্রতীক নিয়ে নাচোল পৌর মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিলেন। ইভিএম পদ্ধতিতে নাচোলে এই প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও ভোটকেন্দ্রগুলিতে নারী-পুরুষ ভোটারের উপস্থিতি ভালো ছিল। নাচোল পৌর এলাকায় ১০ টি ভোট কেন্দ্রে পুরুষ-মহিলা স্থায়ী ভোটকক্ষ ছিল ৪৮টি ও অস্থায়ী ৭টি।