তুরস্কে ব্যর্থ অভ্যুত্থানের বছরপূর্তি

আপডেট: জুলাই ১৬, ২০১৭, ১২:৩৫ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


গত বছরের ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থান প্রচেষ্টাকে স্মরণ করছে তুরস্কের জনগণ। দেশটির প্রেসিডেন্ট রিজেপ তায়িপ এরদোয়ানকে উৎখাতে তুর্কি সেনাবাহিনীর একাংশের চালানো ওই প্রচেষ্টায় অন্তত ২৬০ জন নিহত হয়েছিলেন, আহত হন দুই হাজারেরও বেশি মানুষ। শনিবার ব্যর্থ ওই অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার প্রথম বছরপূর্তিতে তুরস্কজুড়ে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।
দিনটি উপলক্ষ্যে ইস্তাম্বুলের রাস্তাগুলোতে বিশাল বিশাল বিলবোর্ড-পোস্টার টানানো হয়েছে, যেগুলোতে অভ্যুত্থানবিরোধী জনগণকে সেনাবাহিনীর সঙ্গে লড়াই করতে দেখা যাচ্ছে।
এ দিন রাজধানী আঙ্কারায় এরদোয়ান সমর্থকদের র‌্যালি করার কথা রয়েছে। পার্লামেন্ট ভবনের সামনে যেখানে বিদ্রোহী সেনারা বোমা ফেলেছিল সেখানে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান ভাষণ দেবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।
ইস্তাম্বুলের বস্ফোরাস সেতুর যেখানে জনগণ অভ্যুত্থানের চেষ্টাকারী বিদ্রোহী সেনাদের মোকাবিলা করেছে, সেখানেও অপর এক র‌্যালিতে এরদোয়ানের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।  ‘জুলাই অভ্যুত্থান’ চেষ্টার জন্য তুরস্ক সরকার যুক্তরাষ্ট্রে স্বেচ্ছা নির্বাসনে থাকা তুর্কি ধর্মীয় নেতা ফেতুল্লাহ গুলেনের সমর্থকদের দায়ী করলেও গুলেন এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন।
অপরদিকে তুরস্ক সরকারের অনুরোধ সত্বেও গুলেনকে দেশে ফেরত পাঠাতে রাজি হয়নি যুক্তরাষ্ট্র।
ব্যর্থ ওই অভ্যুত্থানচেষ্টাকে কাজে লাগিয়ে প্রেসিডেন্ট তার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য ও স্বার্থ হাসিল করছেন বলে দাবি এরদোয়ান বিরোধীদের। কারণ অভ্যুত্থান ব্যর্থ হওয়ার পর থেকেই বিরোধীদের ওপর ব্যাপক দমনপীড়ন চালাচ্ছেন এরদোয়ান। তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ