‘তুলে নিয়ে যাওয়া’ যুবকের সন্ধান দাবি

আপডেট: অক্টোবর ৩১, ২০১৬, ১১:১৭ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক
নগরীর চন্ডিপুর এলাকার সবুজ আলী (২৫) নামে এক যুবককে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তুলে নিয়ে যাওয়ার ১৮ দিন পরও সবুজের সন্ধান না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা সংবাদ সম্মেলন করে তার সন্ধান দাবি করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে রাজশাহী মেট্রোপলিটন প্রেসক্লাবে এই সংবাদ সম্মেলন করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সবুজের বাবা জারজিস আলী বিসু দাবি করেন, সবুজের নামে থানায় একটি মামলা আছে। এলাকার আয়েশা আক্তার ববী নামে এক নারী ওই মামলার বাদী। গত ১২ অক্টোবর রাত পৌনে ২টার দিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে ছয় জন সাদা পোশাকধারী ব্যক্তিসহ ওই মামলার বাদী  আয়েশা আক্তার ববী ও তার মা শুকুমনী নগরীর রায়পাড়া এলাকার তার এক আত্মীয়ের বাসা থেকে সবুজকে তুলে নিয়ে যান।
ওই দিন থেকে সবুজের কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। সংশ্লিষ্ট থানা, ডিবি অফিস, র‌্যাব অফিস, পিবিআই অফিস এবং আদালতে গিয়েও সবুজকে পাওয়া যায়নি। ১৮ দিন পরেও সবুজের সন্ধান না পেয়ে জারজিস আলী বিসু আয়েশা আক্তার ববী (২৪) ও তার ম শুকুমনীসহ (৪০) অজ্ঞাত ওই ছয়জনকে আসামি করে রাজশাহী মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি অপহরণ মামলা করেন।
সংবাদ সম্মেলনে জারজিস আলী বিসু বলেন, ‘আমার ছেলে সবুজকে যদি আইনশৃঙ্খখলা বাহিনী তুলে নিয়ে গিয়ে থাকেন তাহলে অবিলম্বে তাকে আদালতে হাজির করে বিচারের মুখোমুখি করা হোক। আর যদি তাকে অপহরণ করা হয়, তবে তাকে দ্রুত উদ্ধার করা হোক।’