ত্রিশ বছর পর ‘সংবর্ধিত’ চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া

আপডেট: জানুয়ারি ২৩, ২০১৭, ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



১৯৮৭ সালের ৮ নভেম্বর। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটে সবচেয়ে বড় দিন। এদিন প্রথমবারের মত বিশ্বকাপ জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া।
ভারত ও পাকিস্তানের যৌথ আয়োজনে তৃতীয় বিশ্বকাপের ট্রফি জিতে অ্যালন বর্ডারের অস্ট্রেলিয়া। এরপর স্বপ্নের সেই বিশ্বকাপের ট্রফি আরও চারবার ঘরে তুলে অসিরা।
ত্রিশ বছর পর আইসিসি অস্ট্রেলিয়ার প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী দলটিকে ‘সংবর্ধনা’ দিচ্ছে। একে পূর্ণ ‘সংবর্ধনা’ও বলা যাবে না। সেবার ইডেন গার্ডেনসে ইংল্যান্ডকে ৭ রানে হারানোর পর অ্যালন বর্ডার ও তার দলের হাতে শুধুমাত্র ট্রফি তুলে দেওয়া হয়। ক্রিকেটারদের আলাদা করে দেওয়া হয়নি কোনো পদক কিংবা স্মারক পুরস্কার।
গতকাল সেই স্মারক পুরস্কার পেয়েছেন অসি প্রাক্তন ক্রিকেটাররা। রোববার সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে পাকিস্তান ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার চতুর্থ ওয়ানডেতে ইনিংস বিরতির সময় জমকালো অনুষ্ঠানে অসি ক্রিকেটারদের পদক তুলে দেয়া হয়।
বিশ্বকাপ জয়ী বর্ডার বাহিনীর ১৭ সদস্য ছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দলটির কোচ বব স্পিসন, ম্যানেজার অ্যালন ক্রম্পটন ও ফিজিও অ্যারল এলকট। তাদের পুরস্কার তুলে দেন আইসিসির ডিরেক্টর ডেভিড পিভার, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড ও নির্বাহী মহাব্যবস্থাপক প্যাটহাওয়ার্ড।
অ্যালন বর্ডার বলেন,‘আমি খুবই গর্বিত। ১৯৮৭ সালের খেলোয়াড় ও সহযোগীদের এভাবে সংবর্ধিত করার জন্য। সবার সঙ্গে এতদিন পর দেখা হয়ে ভালো লাগছে। পুরনো দিনগুলোকে আবারও মনে পড়ছে। আমরা হাসছি, আনন্দ করছি পাশাপাশি গর্ব হচ্ছে যে আমরা অস্ট্রেলিয়ার হয়ে কত বড় অর্জন করেছিলাম। সে সময়ে ব্যক্তিগত পদকের কোনো চিন্তা ছিল না। আজ আমরা সেই পদক পেলাম। আমি আইসিসি ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’
গত বছরের জুনে আইসিসির বার্ষিক সভায় প্রধান নির্বাহী কমিটির বৈঠকে অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটারদের পদক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।  শুধু অস্ট্রেলিয়া না বিশ্বকাপ জয়ী দলের ক্রিকেটাররা যারা এখনও ব্যক্তিগত কোনো পদক পাননি তাদেরকেও পদক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিসি। রাইজিংবিডি

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ