দলমত নির্বিশেষে ভুলুকে ভোট দেন : লিটন

আপডেট: ডিসেম্বর ২৩, ২০১৬, ১২:১২ পূর্বাহ্ণ

বাঘা প্রতিনিধি



আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনে মাহবুব জামান ভুলুকে দলমত নির্বিশেষে ভোট দেয়ার আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও রাজশাহী মহানগর সভাপতি এএইচএম খায়রুুজ্জামান লিটন।
গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজশাহীর বাঘা উপজেলার শাহদৌলা ডিগ্রি কলেজ সভা কক্ষে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে লিটন বলেন, মাহবুব জামান ভুলু একজন মুক্তিযোদ্ধা। তিনি জীবনবাজি রেখে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে দেশের জন্য লড়েছেন। তিনি দেশপ্রেমিক। শিক্ষাজীবন থেকে ছাত্রলীগ এবং পরবর্তীতে আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করেছেন। বিগত সময়ে জেলা পরিষদের প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ ব্যক্তিত্ব। একারণে দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাহবুব জামান ভুলুকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করতে হবে।
বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আজিজুল আলমের সভাপতিত্বে আয়োজিত নির্বাচনী সভায় লিটন আরো বলেন, এলাকার উন্নয়ন করতে চাইলে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীকে ভোট দিতে হবে। এক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের বিরোধী অন্য দলের সমর্থিত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলর এবং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যরা ভুলুকে ভোট দেবেন বলে অঙ্গিকার করেছেন। কারণ, যেখানেই ভোট চাইতে গেছি, দলমত নির্বিশেষে সকলেই ভুলুকে ভোট দিতে চেয়েছেন। একারণে আগামি ২৮ ডিসেম্বরের জেলা পরিষদ নির্বাচনে ভুলু ভাই বিজয়ী হবেন ইনশাল্লাহ।
সভায় চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহবুব জামান ভুলু বলেন, এই নির্বাচনে ভোটারের সংখ্যা ১ হাজার ১৭১টি। ভোটে আমার প্রতীক তালগাছ। দলীয় প্রধান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন। আমি আশাবাদী আপনারা প্রধানমন্ত্রীর প্রতি যথার্থ সম্মান দেখিয়ে আমাকে নির্বাচিত করবেন। তিনি বলেন, দলের চেয়ে দেশ বড়। আমি কাজ পছন্দ করি। আপনারা আমাকে নির্বাচিত করলে আমি এলাকার উন্নয়ন করবো। এই প্রতিশ্রুতি দিয়ে গেলাম।
সভায় উপস্থিত বিএনপি সমর্থিত জনপ্রতিনিধিরা মাহবুব জামান ভুলুকে ভোট দেয়ার অঙ্গিকার করেন।
সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মীর ইকবাল হোসেন, সাবেক মহানগর আ’লীগের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট মোজাফফর হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট লায়েব উদ্দিন লাভলু, বাঘা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও রাজশাহী জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা শফিউর রহমান শফি, আড়ানী পৌর মেয়র মুক্তার আলী, জেলা যুব মহিলা লীগের  সভাপতি  নার্গিস শেলী, মনিগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান ও বিএনপির সাবেক উপজেলা সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন, পাকুড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপি নেতা ফকরুর হাসান বাবলু, বাজুবাঘা ইউপি চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা জান্নাত আলী, আড়ানী ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক রফিকুল ইসলাম, চকরাজাপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিযুল আলম, বাউসা ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক নূর আলম পাপপু প্রমুখ। এ সভায় উপস্থিত ছিলেন, বাঘার সাত ইউনিয়ন ও দুই পৌরসভার সকল জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ