দশম জাতীয় সংসদের ত্রয়োদশ অধিবেশন শুরু আজ

আপডেট: ডিসেম্বর ৪, ২০১৬, ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


দশম জাতীয় সংসদের ত্রয়োদশ অধিবেশন আজ রোববার বিকাল ৪টায় শুরু হচ্ছে।
গত ১৪ নভেম্বর রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সংবিধানের ৭২ অনুচ্ছেদের (১) দফায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ অধিবেশন আহবান করেন।
সংসদ সচিবালয় থেকে ইতোমধ্যে ত্রয়োদশ অধিবেশনের সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। তবে আজ বিকেল ৩টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিতব্য সংসদ কার্য উপদেষ্টা কমিটির সভায় ত্রয়োদশ অধিবেশনের কার্যক্রম চূড়ান্ত করা হবে।
সংসদ সচিবালয় থেকে জানানো হয় সংসদের ত্রয়োদশ অধিবেশন সংক্ষিপ্ত হওয়ার কথা রয়েছে। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার জন্য এ অধিবেশন ডাকা হয়েছে। সংবিধান অনুযায়ি এক অধিবেশনের পর পরবর্তী ৬০ দিনের মধ্যে আরেকটি অধিবেশন ডাকতে হবে।
অন্যদিকে আগামী বছরের জানুয়ারিতে নতুন বছরের প্রথম অধিবেশন আহবানের বিষয়েও সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। বছরের প্রথম অধিবেশনের প্রথম দিন সংবিধান অনুযায়ি রাষ্ট্রপতি ভাষণ দিবেন। যেহেতু জানুয়ারিতে আবার অধিবেশন ডাকতে হবে, সেহেতু ত্রয়োদশ অধিবেশ এক সপ্তাহ থেকে ১০ দিন চলতে পারে বলে সংসদ সচিবালয় থেকে জানা গেছে।
এদিকে দশম জাতীয় সংসদের দ্বাদশ অধিবেশন গত ৬ অক্টোবর শেষ হয়েছে। ওই অধিবেশন গত ২৫ সেপ্টেম্বর শুরু হয়। মোট ১০টি কার্যদিবসের এ অধিবেশনে উত্থাপিত ৮টি বিলের মধ্যে ৬টি বিল পাস হয়।
আইন প্রণয়ন সম্পর্কিত কাজ সম্পাদনের পাশাপাশি কার্যপ্রণালী বিধির ৭১ বিধিতে ৩১৮টি নোটিশ পাওয়া যায়। নোটিশগুলো থেকে ১৮টি গৃহীত নোটিশের মধ্যে ৬টি আলোচিত হয়। এছাড়া ৭১(ক) বিধিতে দুই মিনিটের আলোচিত নোটিশের সংখ্যা ছিল ১০৪টি।
এছাড়া এ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর উত্তর দানের জন্য সর্বমোট ১৫৬টি প্রশ্ন পাওয়া যায়। তার মধ্যে তিনি ২৮টি প্রশ্নের উত্তর দেন। মন্ত্রীদের জন্য আনা ২ হাজার ৪শ’টি প্রশ্নের মধ্যে ১ হাজার ৬৬৮টি প্রশ্নের জবাব দেন।
এ অধিবেশনে নারী-পুরুষের সমতা এবং নারী ক্ষমতায়নের জন্য জাতিসংঘ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে প্লানেট ফিফটি ফিফটি চ্যাম্পিয়ন এন্ড এজেন্ট অব চেইঞ্জ অ্যাওয়ার্ড প্রদানে তাঁকে ধন্যবাদ জানিয়ে কার্য প্রণালী বিধির ১৪৭ বিধিতে বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। পরে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে সর্বসম্মতিক্রমে ধন্যবাদ প্রস্তাব গৃহীত হয়।- বাসস