দাদার কবরের জন্য কলাপাতা কাটতে গিয়ে নাতি নিহত

আপডেট: ডিসেম্বর ১৯, ২০১৬, ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি


বার্ধক্যজনিত রোগে দাদা মও. আবদুল কাদেরের দাফন শেষে কবর আচ্ছাদিত করার জন্য কলাপাতা কাটতে গিয়ে অটোরিক্সার ধাক্কায় নিহত হয়েছে নাতি সোহান (১০)। পরে দাদা ও নাতিকে পাশাপাশি দাফন করা হয়।
মর্মান্তিক ও হৃদয় বিদারক এ ঘটনাটি ঘটে গত শনিবার রাতে ঈশ্বরদীর সাহাপুর ইউনিয়নের আওতাপাড়া গ্রামে। নিহত সোহান আওতাপাড়া গ্রামের আবদুল লতিফের ছেলে। সে এবারের পিএসসি পরীক্ষায় আওতাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিল। এলাকাবাসী জানায়, ওই গ্রামের প্রবীণ ব্যাক্তি মওলানা আবদুল কাদের বার্ধক্যজনিত রোগে শনিবার নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন। তার দাফন ও জানাযার প্রস্তুতি চলছিল। এর অংশ হিসেবে নাতি সোহান কলাপাতা কাটতে যাওয়ার সময় বাড়ির পাশে পাবনা পাকশী সড়ক পার হওয়ার সময় পেছন থেকে একটি সিএনজিচালিত অটোরিক্সা ধাক্কা দিলে সে গুরুতর আহত হয়। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে প্রথমে পাবনা ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। আওতাপাড়া বাঁশেরবাদা গোরস্থানে দাদা ও নাতির মরদেহ দাফন করা হয়।